• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০২ অপরাহ্ন

নামলো সতর্ক সংকেত, তাপমাত্রা কমে জেঁকে বসবে শীত


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৭, ২০২১, ২:২৩ অপরাহ্ন / ১৭২
নামলো সতর্ক সংকেত, তাপমাত্রা কমে জেঁকে বসবে শীত

ঢাকা : লঘুচাপ গুরুত্বহীন হয়ে পড়ায় দেশের চারটি সমুদ্রবন্দরের ওপর থেকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত নামিয়ে ফেলা হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত কয়েকটি অঞ্চলে হালকা বৃষ্টি থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। একই সঙ্গে আগামী দিনগুলোতে তাপমাত্রা ক্রমাগত কমে গিয়ে শীত জেঁকে বসবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি। আগামী ২৪ ঘণ্টায় রাতে তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত কমে যেতে পারে।

মঙ্গলবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়ায়, ১৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ঢাকায় ২১ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করে আবহাওয়া বিভাগ। মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে সর্বশেষ আবহাওয়া পরিস্থিতি সম্পর্কে অধিদপ্তর জানিয়েছে, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় দমকা হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। চট্টগ্রাম কক্সবাজার ও মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত সাবধানে চলাচল করতে বলেছে আবহাওয়া বিভাগ।

আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম বলেন, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ-বাংলাদেশ উপকূলীয় এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি প্রথমে দুর্বল হয়ে লঘুচাপে পরিণত হয় এবং পরে আরও দুর্বল গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে। দক্ষিণ বঙ্গোপসাগর থেকে আগত লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানিয়ে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু স্থানে এবং ঢাকা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় হালকা বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আংশিক মেঘলা থেকে মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা এক থেকে তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে জানিয়ে শাহীনুল ইসলাম বলেন, আগামী তিন দিনের মধ্যে রাতের তাপমাত্রা আরও কমে যেতে পারে। সোমবার সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগ ছাড়া সব বিভাগে বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। এসময়ে সবচেয়ে বেশি ১২৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে কুমিল্লায়। ঢাকায় ১০৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।