• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২৮ অপরাহ্ন

নাটোরে রমজানের শুরুতেই দ্রব্য মুল্যর উর্ধ্বগতিতে দিশেহারা নিম্ন আয়ের মানুষ


প্রকাশের সময় : মার্চ ১৫, ২০২৪, ১:৩০ অপরাহ্ন / ২১
নাটোরে রমজানের শুরুতেই দ্রব্য মুল্যর উর্ধ্বগতিতে দিশেহারা নিম্ন আয়ের মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোরঃ নাটোরে রমজানের শুরুতেই দ্রব্য মূল্যের উর্ধ্বগতিতে দিশেহারা নিম্ন আয়ের মানুষ। সব প্রকার সবজির দাম উর্ধ্বমুখি। খুচরা ও পাইকারি পর্যায়ে সবজির দাম এখন ভোক্তার নাগালের বাইরে চলে গেছে। সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে দ্বিগুণ প্যাকেটজাত আটা ৬৫ টাকা, মুশুরির ডাল ১২০ টাকা, ছোলার বুট ১১০ টাকা, মুগের ডাল ১৮০ টাকা, ডিম ৫০ টাকা হালি, সয়াবিন তেল ১৭০ টাকা লিটার এবং খোলা সয়াবিন তেল ১৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

রমজানের তৃতীয় রোজায় সরজমিনে গিয়ে নাটোর সদর, সিংড়া উপজেলা, ও গুরুদাসপুর উপজেলার, বাজারসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে ভোক্তাদের সাথে কথা হলে তারা বলেন, শীত মৌসুমে সবজির দাম কম থাকলেও রমজান মাসের শুরুতেই সবকিছুর দামই ব্যাপক উর্ধ্বমুখি। বিশেষ করে দুধ, চিনি, ছোলা বুট, ডাল, বেগুন, আলু, পেঁয়াজ, শষা, লেবু, খেঁজুর ও মসলার মতো অনেক নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক দামে সীমাহীন কষ্টে স্বল্প আয়ের মানুষ।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পণ্যের দর ওঠানামার বিষয়টি নির্ভর করে চাহিদা ও সরবরাহের ওপর। বাজারে শীতের সবজির সরবরাহ বেড়েছিলো, সেজন্য দাম একটু কম ছিলো কিন্তু রোজা উপলক্ষ্যে সবকিছুর দাম ক্রমেই বেড়ে চলেছে।

কাঁচা বাজারের ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, শিম ৪০ থেকে ৬০ টাকা, বেগুন ৬০ টাকা, করলা ৮০ টাকা, মুলার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়, ফুলকপি প্রতি কেজি ৪০ টাকা, বাঁধাকপি প্রতি পিছ ৩০ টাকা, কাঁচামরিচের কেজি (বিন্দু) ১২০ টাকা। পাঁকা টমেটো ৪০ টাকা, আলু ৪৫ টাকা, ডায়মন্ড আলু ৪০ টাকা, পেঁয়াজ ১২০ টাকা, রসুন ২৪০ টাকা, আদা ২০০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া কেজি ২০ টাকা, হলুদ ২৬০ টাকা, মরিচের গুড়া ১০০০ টাকা কেজি, লাউ প্রতি পিচ ৪০ টাকা, বেগুন ৬০ টাকা, শসা ৮০ টাকা, লতি ১০০ টাকা, পেঁপে ৪০ টাকা, গাজর ৪০ টাকা, লেবু কেজি ১২০ টাকা, ধনিয়া পাতা ১২০ টাকা। খেঁজুর কেজি ১৮০ টাকা থেকে ১ হাজার টাকা, অন্যদিকে চাল কেজি প্রতি কাটারি ৬৬ টাকা, ইন্ডিয়ান ৭৫ টাকা, ৪৯ চাউল ৫৫ টাকা, ২৯ চাউল ৬০ টাকা, বিআর (২৮) ৬৪ টাকা, বিআর (২৯) ৫৮ টাকা, কাটা চাল ৪২ টাকা, আতব ৪৮ টাকা, চিনিগুড়া ১২০ থেকে ১৫০ টাকা।

এদিকে মাংসের বাজারে দেখা যায়, ব্রয়লার মুরগী প্রতি কেজি ২১০ টাকা, কক ৩৬০ টাকা, লেয়ার কক ৩৫০ টাকা, ক্লাসিক (সোনালী) ৩২০ টাকা, কালার বাট ২৯০ টাকা, গরুর মাংস ৭০০ টাকা, খাসি ১১০০ শত টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

তবে মাছের বাজারে আগের তুলনায় তেমন পরিবর্তন দেখা যায়নি।