• ঢাকা
  • শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন

দোয়ারাবাজারে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে হামলা ও লুটপাটের মামলা দায়ের ছাতক দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে হামলা ও লুপাটের অভিযোগ এনে সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে মামলা করা হয়েছে। নির্বাচনী শত্রুতার বিরোধকে কেন্দ্র করে এই মারধর ও লুটপাট করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ জুলাই) উপজেলার সোনাপুর গ্রামের মৃত গেদা মিয়ার ছেলে আনছার উদ্দিন এ মামলা করেন। মামলা সি,আর নং ১৮৪/২২ ইং। দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য নুরপুর গ্রামের আঃবারি ওরফে ডলু মিয়া ছেলে আঃরউফ দিলীপসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ওই মামলা দায়ের করা হয়। মামলার সূত্র জানা যায়, গত ১০ জুলাই সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটের সময় সোনাপুর জামে মসজিদে পবিত্র ঈদ উল আজহার নামাজ শেষে ইউনিয়নের টেংরাটিলা ইসমাইল আলীর পুত্র কাজল মিয়ার পাওনা টাকা ২,২০,০০০(দুই লক্ষ বিশ হাজার) টাকা পরিশোধের লক্ষ্যে ইউপি সদস্য রউফ দিলীপের বসত বাড়ীর উওর দিকে অবস্থিত সরকারি রাস্থার পৌছা মাত্র ইউপি সদস্য রউফ দিলীপে পথরোধ করে এবং ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে আনছার উদ্দিনের উপর হামলা ও টাকা লুটপাটের ঘটনা ঘটে। মালার বাদী আনছার উদ্দিন বলেন বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অন্য প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন করায় ইউপি সদস্য ও তার পরিবারের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। মামলার আসামিরা হলেন বর্তমান ইউপি সদস্য নুরপুর গ্রামের বারি ওরফে ডলু মিয়ার ছেলে আঃরউফ দিলীপ,মৃত আলকাছ আলীর ছেলে সিনর মিয়া,আঃ মানিকের ছেলে আলমগীর, মৃত ফয়জুল রহমানের ছেলে শানুর মিয়া,লায়েক মিয়ার ছেলে মহিবুর রহমান। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য আঃরউফ দিলীপ বলেন, আমি ও আমার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন। মামলা বাদী পক্ষের এডভোকেট নাজমুল হুদা বলেন, মামলাটি বিজ্ঞ আদালত সুনামগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশকে তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


প্রকাশের সময় : জুলাই ২০, ২০২২, ১০:০৪ অপরাহ্ন / ৭১
দোয়ারাবাজারে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে হামলা ও লুটপাটের মামলা দায়ের   ছাতক দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে হামলা ও লুপাটের অভিযোগ এনে সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে মামলা করা হয়েছে। নির্বাচনী শত্রুতার বিরোধকে কেন্দ্র করে এই মারধর ও লুটপাট করা হয়েছে।   মঙ্গলবার (১২ জুলাই) উপজেলার সোনাপুর গ্রামের মৃত গেদা মিয়ার ছেলে আনছার উদ্দিন এ মামলা করেন। মামলা সি,আর নং ১৮৪/২২ ইং।  দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য নুরপুর গ্রামের আঃবারি ওরফে ডলু মিয়া ছেলে আঃরউফ দিলীপসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ওই মামলা দায়ের করা হয়।    মামলার সূত্র জানা যায়, গত ১০ জুলাই সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটের সময় সোনাপুর জামে মসজিদে পবিত্র ঈদ উল আজহার নামাজ শেষে ইউনিয়নের টেংরাটিলা ইসমাইল আলীর পুত্র কাজল মিয়ার পাওনা টাকা ২,২০,০০০(দুই লক্ষ বিশ হাজার) টাকা পরিশোধের লক্ষ্যে ইউপি সদস্য রউফ দিলীপের বসত বাড়ীর উওর দিকে অবস্থিত সরকারি রাস্থার পৌছা মাত্র ইউপি সদস্য রউফ দিলীপে পথরোধ করে এবং ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে আনছার উদ্দিনের উপর হামলা ও টাকা লুটপাটের ঘটনা ঘটে।  মালার বাদী আনছার উদ্দিন বলেন বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অন্য প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন করায় ইউপি সদস্য ও তার পরিবারের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।   মামলার আসামিরা হলেন বর্তমান ইউপি সদস্য নুরপুর গ্রামের বারি ওরফে ডলু মিয়ার ছেলে আঃরউফ দিলীপ,মৃত আলকাছ আলীর ছেলে সিনর মিয়া,আঃ মানিকের ছেলে আলমগীর, মৃত ফয়জুল রহমানের ছেলে শানুর মিয়া,লায়েক মিয়ার ছেলে মহিবুর রহমান।  এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য আঃরউফ দিলীপ বলেন, আমি ও আমার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন।  মামলা বাদী পক্ষের এডভোকেট নাজমুল হুদা বলেন, মামলাটি বিজ্ঞ আদালত সুনামগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশকে তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ছাতক দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারা বাজারে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে হামলা ও লুপাটের অভিযোগ এনে সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে মামলা করা হয়েছে। নির্বাচনী শত্রুতার বিরোধকে কেন্দ্র করে এই মারধর ও লুটপাট করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) উপজেলার সোনাপুর গ্রামের মৃত গেদা মিয়ার ছেলে আনছার উদ্দিন এ মামলা করেন। মামলা সি,আর নং ১৮৪/২২ ইং। দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য নুরপুর গ্রামের আঃবারি ওরফে ডলু মিয়া ছেলে আঃরউফ দিলীপসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ওই মামলা দায়ের করা হয়।

মামলার সূত্র জানা যায়, গত ১০ জুলাই সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটের সময় সোনাপুর জামে মসজিদে পবিত্র ঈদ উল আজহার নামাজ শেষে ইউনিয়নের টেংরাটিলা ইসমাইল আলীর পুত্র কাজল মিয়ার পাওনা টাকা ২,২০,০০০(দুই লক্ষ বিশ হাজার) টাকা পরিশোধের লক্ষ্যে ইউপি সদস্য রউফ দিলীপের বসত বাড়ীর উওর দিকে অবস্থিত সরকারি রাস্থার পৌছা মাত্র ইউপি সদস্য রউফ দিলীপে পথরোধ করে এবং ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে আনছার উদ্দিনের উপর হামলা ও টাকা লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

মালার বাদী আনছার উদ্দিন বলেন বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অন্য প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন করায় ইউপি সদস্য ও তার পরিবারের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। মামলার আসামিরা হলেন বর্তমান ইউপি সদস্য নুরপুর গ্রামের বারি ওরফে ডলু মিয়ার ছেলে আঃরউফ দিলীপ,মৃত আলকাছ আলীর ছেলে সিনর মিয়া,আঃ মানিকের ছেলে আলমগীর, মৃত ফয়জুল রহমানের ছেলে শানুর মিয়া,লায়েক মিয়ার ছেলে মহিবুর রহমান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য আঃরউফ দিলীপ বলেন, আমি ও আমার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন।

মামলা বাদী পক্ষের এডভোকেট নাজমুল হুদা বলেন, মামলাটি বিজ্ঞ আদালত সুনামগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশকে তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।