• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ Jul ২০২৪, ০৭:৩২ পূর্বাহ্ন

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ইন্টার্নি করতে আশা ডিপ্লোমা ছাত্র আরিফ যখন ডাক্তার


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৯, ২০২৩, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন / ৪০
ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ইন্টার্নি করতে আশা ডিপ্লোমা ছাত্র আরিফ যখন ডাক্তার

ইমাম বিমান, ঝালকাঠিঃ ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট হিসেবে ডিপ্লোমা পড়ুয়া ইন্টার্নি করতে আশা আরিফুল রহমান আরিফ এখন সদর হাসপাতালে আউটডোরের চিকিৎসক হিসেবে রোগীরদের চিকিৎসাপত্র দিচ্ছে । গত ৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানাযায় হাসপাতালে ডিপ্লোমা পড়ুয়া

মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট হিসেবে ইন্টার্নি করতে আশা ছাত্র আরিফুল রহমান আরিফ রোগীদের চিকিৎসাপত্র দিচ্ছে।

সরোজমিনে গিয়ে দেখাযায়, ঐ দিন দুপুর আনুমানিক ১২ টায় সদর হাসপাতালের আউটডোরে ১১০নম্বর কক্ষে বসে মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট হিসেবে ইন্টার্নি করতে আশা ডিপ্লোমা পড়ুয়া ছাত্র আরিফ রোগীদের চিকিৎসার জন্য ব‍্যাবস্থাপত্র দিচ্ছেন এবং ব্যবস্থাপত্রে তিনি নিজেই স্বাক্ষর করছেন। হাসপাতালে খবর নিয়ে জানাযায়, মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট হিসেবে ডিপ্লোমা কোর্সে ঝালকাঠি মেডিকেলে ইন্টার্নি করতে আশা ছাত্র আরিফ ডাক্তার নন।

এ বিষয় আরিফের কাছে ডাক্তার না হয়েও কি করে আপনি রোগী দেখেন এবং রোগীর ব্যবস্থাপত্র দেন জানতে চাওয়া হলে আরিফুর রহমান আরিফ উত্তরে বলেন, আমি রোগী দেখতে পারবো ও ব্যবস্থাপত্র দিতে পারব। এছারাও আপনাকে কি ঝালকাঠি মেডিকেলে সরকারি ভাবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে জানতে চাওয়া হলে এ বিষয়ে তিনি এড়িয়ে যান। এবং বলেন আমাকে মেডিকেল অফিসার আরএমও দায়িত্ব দিয়েছে আমি রোগী দেখছি ও ব্যবস্থাপত্র দিচ্ছি।

এ বিষয়ে মেডিকেল অফিসার আরএমও ডাক্তার মোঃ মেহেদী হাসান ছানির কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, তাকে কোন রোগী দেখতে বলা হয়নি বা কোন ব্যবস্থাপত্র দিতে বলা হয়নি। এরকম যদি কিছু করে থাকে আমরা খোঁজ নিয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।