• ঢাকা
  • বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৪ অপরাহ্ন

জমকালো আয়োজনের মধ্যে দিয়ে রাবেয়া-আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২৪, ৬:৪৯ অপরাহ্ন / ২৪২
জমকালো আয়োজনের মধ্যে দিয়ে রাবেয়া-আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়ায় ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত স্বনামধন্য রাবেয়া-আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, কুচকাওয়াজ ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জমকালো এ আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেশ বরেণ্য কথা সাহিত্যিক (একুশে পদক প্রাপ্ত) ও বাংলা একাডেমী’র সভাপতি সেলিনা হোসেন।

শনিবার সকাল ৯ টায় আমন্ত্রিত অতিথিগণ, শিক্ষক- শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ সম্মিলিতভাবে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও পবিত্র গীতা পাঠের পর মূল কার্যক্রম শুরু হয়।অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাবেয়া- আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, ডিএমপি কমিশনার (অতিরিক্ত আইজিপি) হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার)।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, গোপালগঞ্জ পুলিশ সুপার আল-বেলী আফিফা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. মুন্সী আতিয়ার রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব আলী খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা আইসিটি) গোলাম কবির, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ মোজাম্মেল আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোঃ মুহাইমিনুল ইসলাম, রাবেয়া আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তানিয়া খান।

আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ সহ উপস্থিত সকলে অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় ইংরেজ শাসন আমল থেকে শুরু করে স্বাধীন বাংলার মসনদের শেষ নবাব সিরাজুদ্দৌলা, ‘৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ‘৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, ‘৭৫ – এ সপরিবারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নির্মমভাবে হত্যা, বাল্যবিবাহ রোধে নাটিকা, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বে পদ্মা সেতু ও কর্ণফুলী টানেল সহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড মনোজ্ঞ ডিসপ্লের মাধ্যমে প্রদর্শন করে ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করে।

এ সময় প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, গোপালগঞ্জের চন্দ্রদিঘলিয়া নিবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মোহাম্মদ আলীর সুযোগ্য পুত্র (আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদকপ্রাপ্ত), মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা, ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার) বিপিএম (বার) তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, তার বাবা ও মায়ের নামে ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত রাবেয়া- আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ প্রতিষ্ঠায় এবং উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি দ্রুত এমপিও ভুক্ত করার পিছনে গোপালগঞ্জ-২ আসনের বারবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, অন্যতম দাতা বিশিষ্ট সমাজসেবক ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ মোজাম্মেল আলী সহ সরকারের সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। তিনি আরো বলেন, এ প্রতিষ্ঠান আমার নয়, আপনাদের সকলের। এখানে অসহায়, গরিব ও মেধাবী নারী শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া শিখে সুশিক্ষা অর্জন করে আগামীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত স্মার্ট দেশ বিনির্মাণে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এখানে মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রতিবছর স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার নির্বাচিত হয়। পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলায় অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা যথেষ্ট সুনাম অর্জন করে চলেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি অজপাড়া গায়ে প্রতিষ্ঠিত হলেও গুণগতমান বিবেচনায় রাজধানীর নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চেয়ে কোন অংশে কম নয়।

এ সময় বিশিষ্ট সমাজসেবক ও রাজনীতিবিদ গাজী মিজানুর রহমান (হিটু গাজী), সদর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বিএম লিয়াকত আলী ভূঁইয়া, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ও উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ছবেদ আলী ভূঁইয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোল্লা আছাদুজ্জামান, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিরুন্নাহার ইউসুফ, ভাইস-চেয়ারম্যান নিতিশ রায়, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য শাহনাজ নাজনীন বাবলী, চন্দ্রদিঘলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হাদিউজ্জামান মোল্লা (জাবেদ), সদর উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ, চন্দ্র দিঘলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম মোল্লা, বিশিষ্ট ব্যাংকার ও সমাজ সেবক এম এ সেলিম মোল্লা, রাবেয়া আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের গভর্নিং বডির দাতা সদস্য ও চন্দ্রদিঘলিয়া একতা ক্লাবের সভাপতি ওলিয়ার রহমান সহ জেলায় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান আমন্ত্রিত অতিথিগণদের সাথে নিয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় এবং ডিসপ্লে প্রদর্শনীতে অসাধারণ নৈপূন্য রাখায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। পরে অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আমন্ত্রিত অতিথিগণদেরকে ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়। এরপর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সেলিনা হোসেন, সভাপতি হাবিবুর রহমান, বিশেষ অতিথি সৈয়দ মোজাম্মেল আলী, অত্র প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তানিয়া খান এবছরের স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার অনামিকা আক্তার জুঁই ও গত বছরের স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার লিয়া মণির হাতে উপহারের ল্যাপটপ তুলে দেন।