• ঢাকা
  • শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:৫৪ অপরাহ্ন

ছোট বোন রেহানা আমার পাশে না থাকলে আমি এত কাজ করতে পারতাম না——টুঙ্গিপাড়ার জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৩০, ২০২৩, ৯:২৭ অপরাহ্ন / ২৮
ছোট বোন রেহানা আমার পাশে না থাকলে আমি এত কাজ করতে পারতাম না——টুঙ্গিপাড়ার জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে প্রাণ খুলে কাজ করে যাচ্ছি, আর এগুলো সম্ভব হয়েছে আমার ছোট বোন শেখ রেহানার জন্য। রেহানা আমার পাশে না থাকলে আমি এতো কাজ করতে পারতাম না। গতকাল শনিবার ৩০ ডিসেম্বর গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় সরকারি শেখ মুজিবুর রহমান কলেজ মাঠে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় এসব কথা বলেন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘৭৫-এর পরে আমি যখন দেশে আসি তখন শুধু শেখ রাসেল আর কামাল, জামালকে খুঁজতে ছিলাম। তখন ও আমাকে স্বৈরাচারী বিএনপি বিভিন্ন কাজে বাঁধা দেয়। তবে সেদিন আমি আমার ভাইদেরকে না পেলেও এয়ারপোর্টে হাজার হাজার মানুষ আমার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলো। সেদিন থেকেই দেশের উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আমাকে হত্যার জন্যে বিএনপি-জামায়াতের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন হামলায় আমার এই জনগণ মানবঢাল হয়েছিলো আর আল্লাহর রহমতে আমি বেঁচে আছি। স্বাধীনতা বিরোধী সেই অপশক্তি আজও মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে। আগুন সন্ত্রাসী করাই হচ্ছে বিএনপি-জামায়াতের কাজ। লন্ডনে বসে তারেক জিয়া হুকুম দেয় আর তার কথা শুনে একদল বিপথগামী লোক এ্যাম্বুলেন্স, হাসপাতালে হামলা সহ পুলিশ সদস্যও পিটিয়ে মেরেছে। ভবিষ্যতে যদি আবারও এমন কোনো কাজ করে তাহলে ঐ তারেক জিয়াকে ধরে এনে আইনের আওতায় আনবো।

এ সময় নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে তিনি বলেন, আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে নিয়ে একদল বিপথগামী লোক ও বিদেশী চক্র নাশকতা করছে। সুতরাং সকলে মিলে আগামী ৭ জানুয়ারি পুনরায় নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে দিয়ে জয়যুক্ত করবেন এই আশা ব্যক্ত করছি। আমি অনেক ভাগ্যবান যে আপনাদের মত জনগণ পেয়েছি।

এদিন নির্বাচনী প্রচারের অংশ হিসেবে টুঙ্গিপাড়ার শেখ মুজিবুর রহমান কলেজ মাঠে ভাষণ শেষে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার শেখ লুৎফর রহমান কলেজ মাঠে আয়োজিত জনসভায় যোগ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এবং একই দিনে মাদারীপুরের কালকিনিতে আয়োজিত জনসভায় অংশগ্রহণ করার কথা রয়েছে আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনার।