• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আখ ক্ষেতে কঙ্কাল উদ্ধার : ৮ মাস আগে নিখোঁজ যুবক মো.আসাদুল্লাহকে গুম করে প্রতিপক্ষরা


প্রকাশের সময় : মার্চ ১২, ২০২৩, ৯:৪৪ অপরাহ্ন / ৬০
চাঁপাইনবাবগঞ্জে আখ ক্ষেতে কঙ্কাল উদ্ধার : ৮ মাস আগে নিখোঁজ যুবক মো.আসাদুল্লাহকে গুম করে প্রতিপক্ষরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাবগঞ্জঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ আখ ক্ষেত থেকে একটি কঙ্কাল ও ছেঁড়া গেঞ্জি উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার বিকেলে শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়নের চানকার মাঠে কঙ্কালটি উদ্বার করছে পুলিশ। চানকার মাঠের একটি আখ ক্ষেতে কয়েক জায়গায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দেহের বিভিন্ন অংশের কঙ্কাল, মাথার খুলি ও ছেঁড়া গেঞ্জি উদ্ধার করা হয়েছে

এদিকে ক্ষেতে উদ্বার হওয়া কঙ্কালটি ৮ মাস আগে নিখোঁজ হওয়া পাশের গ্রামের এক যুবকের বলে দাবি তার পরিবারের। নিখোঁজ যুবক শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙা ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামের মো.লুটুর ছেলে মো.আসাদুল্লাহ (২১)। ওই যুবক নিখোঁজ হয় গত বছরের ২৭ জুন।

সরজমিনে গিয়ে স্থানীয় বাসিন্দা,প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আখ ক্ষেতে জমি চাষাবাদের পর ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কঙ্কাল ও ছেঁড়া গেঞ্জি দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে কয়েকশ হাত দূরে খোঁজাখুজি করলে একটি আম বাগানে মাথার খুলি ও দাঁতের চোয়াল দেখতে পাওয়া যায়।

নিখোঁজ যুবকের বাবা মো. লুটু আলী বলেন, প্রায় ৮ মাস আগে আমার ছেলে নিখোঁজ হয়। আমার ছেলেকে পূর্ব শত্রুতার জেরে খেলতে যাওয়ার নাম করে নিয়ে গিয়ে গুম করে হত্যা করা হয়। থানায় জিডি করেছি আদালতে মামলা করেছি। কিন্তু কোন খবর পায়নি। এমনকি গ্রামের লোকজনকে নিয়ে মাঠে অনেক খোঁজাখুঁজি করলেও কোন সন্ধান পাইনি।

উদ্বার হওয়া কঙ্কাল নিজের ছেলের দাবি করে তিনি আরও বলেন, যেই লাল রঙের গেঞ্জি গায়ে দিয়ে নিখোঁজ হয় সেই গেঞ্জি পাওয়া গেছে আখ ক্ষেতে। তা দেখেই আমি নিশ্চিত এটা আমার ছেলের কঙ্কাল। আশা করি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে ও আমি ন্যায় বিচার পাবো। জিডিতেও এই গেঞ্জির কথা উল্লেখ করেছিলাম বলে জানান তিনি।

কয়েকটি কঙ্কাল ও মাথার খুলি উদ্ধার হয়েছে শিবগঞ্জ উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের মর্দনা গ্রামের বাহার হাজীর ছেলে আবু বাক্কারের চাষাবাদ করা জমিতে।

তিনি জানান, এ সব বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। সর্বশেষ জমিতে গেছিলাম এক মাস আগে। ৬ মাস আগে শুনেছিলাম আমার পাশের একটি জমিতে মাথা পাওয়া গেছিল। আজকে পুলিশকে খবর দিয়েছে আমার জমিতে নাকি একটি কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রাকিব বলেন, কয়েক মাস আগেও আম বাগানে শুধুমাত্র একটি মাথার খুলি পাওয়ার খবর পাওয়া গেছিল। তবে সে সময় দেহের অন্যান্য অংশ দেখতে পাওয়া যায়নি। আজ রবিবার খবর পেলাম দেহের অন্যান্য অংশের কঙ্কাল দেখতে পাওয়া গেছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস্) মো. রোকনুজ্জামান সরকার, শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস্) মো. রোকনুজ্জামান সরকার বলেন, জরুরি সহায়তা সেবা ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। এই এলাকায় যেহেতু একটি নিখোঁজ হওয়াকে কেন্দ্র করে মামলা চলমান রয়েছে ও তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেটশন-পিবিআই তদন্ত করছে। তাই পিবিআইকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা এসে ঘটনাস্থলে আলামত সংগ্রহ করবে ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।