• ঢাকা
  • শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:০১ অপরাহ্ন

গোপালগঞ্জ পৌর নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভাবে সম্পন্ন করতে গনমাধ্যমকর্মীদের সাথে মেয়র প্রার্থী কাজী লিয়াকত আলী’র মতবিনিময় সভা 


প্রকাশের সময় : জুন ৬, ২০২২, ৯:২৮ অপরাহ্ন / ৯২
গোপালগঞ্জ পৌর নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভাবে সম্পন্ন করতে গনমাধ্যমকর্মীদের সাথে মেয়র প্রার্থী কাজী লিয়াকত আলী’র মতবিনিময় সভা 

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ আগামী ১৫ জুন (বুধবার) অনুষ্ঠিত্য গোপালগঞ্জ পৌরনির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী আচরন বিধি, নির্বাচনী ইশতেহার, নির্বাচনকালীন সুষ্ঠ পরিবেশ বজায় রাখা, অপপ্রচার রোধ, স্থানীয় ভোটারদের মাঝে গুজব ঠেকানো, ভোট গ্রহণ শেষে ভোট কেন্দ্র থেকে কেন্দ্র ভিত্তিক ফলাফল ঘোষনার প্রতি গুরত্বারোপ করে এবং নির্বাচনী প্রতীক মোবাইল ফোন মার্কায় ভোট চেয়ে নিজ নির্বাচনী কার্যালয়ে স্থানীয় গণমাধ্যম তথা প্রিন্ট ও ইলক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভা নির্বাচনের মেয়র পদপ্রার্থী, সাবেক মেয়র কাজী লিয়াকত আলী (লেকু)।

এ সময় সাবেক পৌর মেয়র কাজী লিয়াকত আলী বলেন, গোপালগঞ্জ পৌরসভায় গত ৫০ বছরে কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। আমি মেয়র পদের দায়িত্ব গ্রহণের পর গোপালগঞ্জ শহরের মধ্যদিয়ে প্রবাহিত বৈরাগীর খাল উদ্ধার ও পানির স্বাভাবিক প্রবাহ বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন স্থানে কালভার্ট নির্মাণ, আধুনিক সুযোগ-সুবিধা বেষ্টিত পৌর ঈদগাহ নির্মাণ, সর্বাধুনিক দুইটি পৌর সুপার মার্কেট নির্মাণ ও বহুতল বিশিষ্ট কাচাঁবাজার নির্মাণ, গোপালগঞ্জ পৌর এলাকায় পাকা ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও পয়ঃনিষ্কাশনের ব্যবস্থা, রাস্তা-ঘাট উন্নয়ন, ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে পৌর বাসস্ট্যান্ডের জন্য ৫ একর জায়গা ক্রয়, ২২ কোটি টাকা ব্যয়ে শিশুপার্ক নির্মাণের জন্য ৬ একর জায়গা ক্রয় এবং আধুনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও জৈবসার উৎপাদনের জন্য ডাম্পিং স্টেশন নির্মাণের ব্যবস্থা করেছি। আমি যদি গোপালগঞ্জ পৌরবাসীর ভোটে পুনঃরায় মেয়র নির্বাচিত হতে পারি, তাহলে পৌর সভায় চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখাসহ অসম্পূর্ন বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করবো বলে কথা দিচ্ছি।

গনমাধ্যমকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার এক পর্যায়ে তিনি বলেন, গোপালগঞ্জের ৯৯% লোকই আওয়ামীলীগ তথা বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শের সৈনিক। তাই দল থেকে কোন প্রার্থীকে নৌকা প্রতীক দিয়ে মনোনীত করা হয়নি এবং সকলের জন্য উন্মুক্ত পৌর নির্বাচনের ব্যবস্থা করার ফলে আমি নিজেও একজন মেয়র পদপ্রার্থী। তাই আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে সঠিক ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন, গুজব প্রতিরোধ ও নির্বাচনী সুষ্ঠু পরিবেশ বানচালকারী কুচক্রী মহলকে চিহ্নিত করে প্রশাসনের নিকট তথ্য সরবরাহের জন্য
গনমাধ্যমকর্মীদের কাছে উদাত্ত আহবান জানান তিনি।

মতবিনিময় সভায় গোপালগঞ্জ জেলা শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি এ্যাড. কাজী জীন্নাত আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক ইয়াহিয়া খালেদ সাদি, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক মো. রাজি উদ্দিন খান, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মিটু, সহ-সভাপতি আবু সাঈদ সিকদার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম সহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।