• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:১৮ অপরাহ্ন

গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশের অভিযানে ১ মাসে ৭ মৃত্যুদণ্ড সাজাপ্রাপ্ত ফেরারি আসামি গ্রেপ্তার, পুলিশ সুপারের পুরস্কার প্রদান


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৭, ২০২২, ৯:৩৭ অপরাহ্ন / ৬৫
গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশের অভিযানে ১ মাসে ৭ মৃত্যুদণ্ড সাজাপ্রাপ্ত ফেরারি আসামি গ্রেপ্তার, পুলিশ সুপারের পুরস্কার প্রদান

কে এম সাইফুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ গোপালগঞ্জ জেলার সদর থানার একটি চৌকস দল গত নভেম্বর ২০২২ -এ দুইজন (০২) জন সহ ডিসেম্বর মাসে আরো পাঁচ (০৫) জন খুনি পলাতক আসামি গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। যারা দীর্ঘদিন মৃত্যুদণ্ড সাজা মাথায় নিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় লোকচক্ষুর অন্তরালে পালিয়ে ছিলো।

গোপালগঞ্জের চৌকস পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা বিপিএম পিপিএম মহোদয়ের তত্বাবধানে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ উক্ত টিম তৈরি করেন ও অভিযান পরিচালনা করেন। গোপালগঞ্জ সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শীতল চন্দ্র পাল, এস আই রাসেল, এস আই গনেশ, এ এস আই মামুন, এ এস আই মিতুল-দের সমন্বয়ে গঠিত এ চৌকস দল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. খায়রুল আলমের দিকনির্দেশনায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় দীর্ঘদিন ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় অভিযান পরিচালনা করে পলাতক আসামিদেরকে গ্রেপ্তার করে রীতিমতো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশের এ সাফল্য বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সুনাম ও দক্ষতা অনেকাংশে বৃদ্ধি করবে বলে মনে করছেন সাধারণ জনগণ।

গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা বিপিএম পিপিএম আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন, বিজ্ঞ আদালতে দোষী সাব্যস্ত এবং পুলিশ ও সাধারণ জনগণের চোখ ফাঁকি দিয়ে সমাজে ঘুরে বেড়ানো ০৭ জঘন্য ও দুর্ধর্ষ অপরাধীকে অল্প সময়ে গ্রেপ্তার করে মৃত্যুদন্ড নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে কারাগারে প্রেরণ করার বিষয়টি নি:সন্দেহে একটি ভালো অর্জন। তিনি মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) অপরাধ সভা নভেম্বর/২২ শেষে উক্ত চৌকস দলের সবাইকে বিশেষ পুরস্কার হিসেবে সম্মাননা ক্রেস্ট, সনদ ও নগদ অর্থ প্রদান করেন। এমন উত্তম কাজের ধারা অব্যাহত রাখার বিষয়ে তিনি সকল থানার অফিসারদের নিকট প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।