• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ


প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১৭, ২০২৪, ৮:১১ অপরাহ্ন / ৫২
গোপালগঞ্জে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোপালগঞ্জঃ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বৌলতলী ইউনিয়নের কলপুর মধ্যপাড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী জান্নু উকিলের স্ত্রী মিতা বেগম‌ (৩৮) ও তার আপন ভাই শফিকুল উকিল (৪৫) এর বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী মোঃ মনিরুজ্জামান উকিল (৪৫)। বাঁধা দিলে প্রতিপক্ষ তাকে খুন জখম করার হুমকি দেন।

বিষয়টি নিয়ে ওই গ্রামে একাধিকবার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে সালিশ-বৈঠক বসলেও মিতা বেগম সালিশের রায় না মানায় পরে ভুক্তভোগী মোঃ মনিরুজ্জামান নিরুপায় হয়ে গোপালগঞ্জের বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (এডিএম) এ প্রতিকার চেয়ে একটি মিস পিটিশন দায়ের করেন। মিস পিটিশন মামলা নং ১৬৪/২০২৪।

পরে আদালতের নির্দেশ প্রাপ্ত হয়ে (স্মারক নং- ২৫৫, তারিখ- ১০/০৩/২০২৪ ইং) গোপালগঞ্জ সদর থানার এএসআই (নিঃ) মোঃ রবিউল ইসলাম গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ৫১ নং কলপুর মৌজার বিআরএস খতিয়ান নং -২৬৬, দাগ নং -৩১৯০, মোট জমির পরিমাণ ১২ শতাংশ তন্মধ্যে ৪ শতাংশ উত্তর তরফ দিয়ে এবং বিআরএস খতিয়ান নং -১০৬৮, দাগ নং -৩১৯০ জমির পরিমাণ ২৮ শতাংশ তন্মধ্যে ৫ শতাংশ রাহা উক্ত দাগের মাঝ খান দিয়ে মোট (৪+৫) = ৯ শতাংশ এবং ওই একই মৌজার ১০৬৫ নং খতিয়ানের ৩১৯৮ নং দাগের ১৪ শতাংশের মধ্যে ২.৫০ শতাংশ সর্বমোট (৯+২.৫০) = ১১.৫০ শতাংশ নালিশি ভূমিতে উভয়পক্ষকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার অনুরোধ জানিয়ে ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ১৪৪/১৪৫ ধারা সংক্রান্তে নোটিশ প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, মিতা বেগমের আত্মীয় মাহফুজুর রহমান দুলু সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উদ্যোগ নিয়েও বিষয়টি সমাধানে ব্যর্থ হন। সরেজমিনে ওই গ্রামে গিয়ে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও একাধিক গ্রামবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, মিস পিটিশনের পর মিতা বেগম নিজে বাদী হয়ে প্রতিপক্ষ মোঃ মনিরুজ্জামান গংদের আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলায় অসুস্থ (সড়ক দুর্ঘটনায় এক পায়ে সমস্যা) মনিরুজ্জামান হাজত বাস করছেন। আর সেই সুযোগে মিতা বেগম উক্ত নালিশি ভূমিতে বহুতল বিশিষ্ট পাকা ভবন নির্মাণের কাজ চালু রেখেছেন। পরে পুলিশ গিয়ে আদালতের পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন বলে জানা গেছে।