• ঢাকা
  • সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জের লাকি বেগম অনেকের জন্য অনুকরণীয় হতে পারেন


প্রকাশের সময় : জুলাই ৫, ২০২১, ৯:৫৩ অপরাহ্ন / ১৯৮
গোপালগঞ্জের লাকি বেগম অনেকের জন্য অনুকরণীয় হতে পারেন

কে এম সাইফুর রহমান, গোপালগঞ্জঃ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নে আশ্রায়ন প্রকল্প-২ এর একজন উপকারভোগী মহিলা, নাম লাকি বেগম। যিনি মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া জমিসহ ঘর উপহার পেয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত এবং সেই ঘরটি তিনি সাজিয়েছেন তার সামর্থ্যের সব টুকু উজার করে। প্রাকৃতিক ফুল, বিভিন্ন জাতের ফুলগাছ এবং বাহারি লতার সংমিশ্রণে সাজিয়েছেন ঘরটি। যা ইতোমধ্যেই অনেকের নজর কেড়েছে।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রাশেদুর রহমান অতিসম্প্রতি টানা ভারী বর্ষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া বিশেষ বরাদ্দে সদ্য নির্মিত ঘরগুলোর কোন ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে কি না তা বিভিন্ন ইউনিয়নে সরেজমিনে গিয়ে দেখেন। সেই সাথে করোনা (কোভিড-১৯) মোকাবেলায় সরকার ঘোষিত চলমান লকডাউনে ঘর পাওয়া সুবিধাভোগী মানুষের জীবন-জীবিকার খোঁজ খবর নেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত রোববার (৪ জুলাই) দুর্গাপুর ইউনিয়নের উক্ত আশ্রায়ন প্রকল্পে পরিদর্শনে গিয়ে তিনি লাকি বেগমের এই প্রশংসনীয় উদ্যোগ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং লাকি সহ লাকির মতো যারা প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়ে ঘরের যত্ন নিবেন তাদেরকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন তিনি।

সেই সাথে ইউএনও দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজিব আহমেদকে প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীন অসহায় পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহারের ঘর গুলো বিতরণ করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহারের ঘর গুলো প্রতিটি উপকারভোগী লাকি’র মতো এমনি ভাবে সংরক্ষন করবেন এমনটাই প্রত্যাশা করেন তিনি। পরে বিষয়টি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ভেরিফাইড ফেসবুক আইডি থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপলোড হলে অনেকেই এর প্রশংসা করে এ ধরনের কর্মকাণ্ডকে উৎসাহিত করেন।