• ঢাকা
  • শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:২৫ অপরাহ্ন

গাজিপুরের শ্রীপুরে ফেসবুকে সম্মান হানিমূলক পোস্ট দিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবির অভিযোগ পাওয়া যায়


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২৪, ২০২৩, ১১:৪৫ অপরাহ্ন / ১৩
গাজিপুরের শ্রীপুরে ফেসবুকে সম্মান হানিমূলক পোস্ট দিয়ে মোটা অংকের টাকা দাবির অভিযোগ পাওয়া যায়

নিজস্ব প্রতিবেদক,গাজীপুরঃ গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা বরমী ইউনিয়নের চর বাহার, গ্রামের রিফাত(২৫) তার নেতৃত্বে তারই সৎ ভাই হৃদয় (২৫) সৌদি আরব প্রবাসী থেকে বিভিন্ন ধরনের মানহানি মূলক পোস্ট দিচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, যার উপযুক্ত তথ্য-প্রমাণ রয়েছে,, এবং বাদী বিবাদী তাদের একটি সুসম্পর্কের কথা ও জানা যায়। সেই সুবাতে গোপনে ইমু হ্যাক করে কিছু অশ্লীলতার ছবি ভিডিও নিয়ে নেই অভিযুক্তরা। তারপর পর ফোন দিয়ে কিংবা মেসেঞ্জারে বিভিন্ন জায়গায় প্রেরণ করে, বিভিন্নভাবে টাকা দাবি করছে,,প্রবাসী সোহাগ টাকা দেওয়ার কথা স্বীকার না হওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অন্য নামক আইডি দিয়ে মানহানি করার চেষ্টা চালাচ্ছেন হৃদয় নামে প্রবাসী ছেলেটা। এবং সে এটাও স্বীকার করেছেন আমি কিছু পোস্ট করিনি অন্য একটা আইডি থেকে অন্যরা করেছে,, আমি সেটা স্ক্রিনশটের মেসেঞ্জারে মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েছি,,

এ বিষয়ে অভিযোগকারী সুজন এর বড় ভাই সৌদি প্রবাসী সোহাগের সঙ্গে কথা বললে সোহাগ জানান, এই প্রতারকের হাত থেকে আমি মুক্তি চাই, সে আমাকে সমাজে ছোট করার লক্ষ্যে এমন অপচার চালাচ্ছে,, এবং টাকা পেয়ে থাকলে আমি টাকা দিয়ে দেব কারণ আমি কখনো তার কাছ থেকে কোন টাকা নেইনি অযথাই আমাকে বলতেছে সে আমার কাছে টাকা পাবে এবং আমি সেই প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি সে যদি আমার কাছে টাকা পায় উপযুক্ত প্রমাণ দেওয়ার জন্য আপনারা সত্য উদঘাটন করুন এটা আপনাদের একান্তর দায়িত্ব প্রমাণস্বরূপ দশ জনের সাক্ষীর সাক্ষাতে আমি টাকা দিয়ে দিব,, আমি ১৪ বছর যাবত প্রবাসে আছি আজ পর্যন্ত কেউ এমন কথা বলতে পারেনি আমার কাছে কেউ টাকা পাবে,এমন অনেক প্রমাণ রয়েছে আমি অনেক মানুষকে টাকা ধার দিয়েছি,, আজ আমার উপর এমন একটি কথা উঠিয়ে দিল যদি আত্মহত্যা মহাপাপ না হলে, তাই করতাম আমি। আপনাদের কাছে বিচার চাই। সুস্থ তদন্ত সাপকে আমাকে সুবিচার পাইয়ে দিবেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত রিফাতের ছোট ভাইয়ের সাথে গণমাধ্যম কর্মীর এলাকার সুবাদে ছোট ভাইয়ের মত সুসম্পর্ক রয়েছে তাই থানায় অভিযোগ পাওয়া মাত্র তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে,যোগাযোগ করেছিলেন এবং গণমাধ্যম কর্মী হৃদয় কে বুঝিয়ে বিষয়টি বলে, যেহেতু তুমি সোহাগের কাছে টাকা পাবে তুমি উপযুক্ত প্রমাণ দিয়ে টাকা নিয়ে নেবে এবং টাকা দিতে না চাইলে প্রশাসনিক ব্যবস্থা মাধ্যমে টাকা উদ্ধার করে দিবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তুমি তোমার পোস্টগুলো ডিলিট করে দিও, সে তার মাকে উল্টাপাল্টা বলে, তার মা গণমাধ্যম কর্মীকে ফোনের মাধ্যমে অজস্র ভাষায় গালিগালাজ সহ মারপিট করিবে বলে হুমকি প্রদান করিয়াছে যাহা ফোন রেকর্ড রয়েছে।

এ বিষয়ে শ্রীপুর মডেল থানার এস.আই মোঃ সোহেল রানা নতুন সকলকে জানান,ঘটনার অভিযোগ পেয়েছি এবং আমরা দ্রুত ঘটনা সত্যতা যাচাই করে আইনঅনুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।