• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন

খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচনে সিসি ক্যামেরার দাবি


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৬, ২০২২, ১২:০০ পূর্বাহ্ন / ১৭
খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচনে সিসি ক্যামেরার দাবি

মুস্তাইন বীন ইদ্রিস,খুলনা: খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচনের ১০টি ভোট কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, কেন্দ্রে মোবাইল ফোনসহ সকল ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিষিদ্ধ, ইভিএম বুথে ভোটার ব্যতিত কাউকে প্রবেশ করতে না দেওয়া এবং ভোট কেন্দ্রে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ডা. শেখ বাহারুল আলম।শনিবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে খুলনা বিএমএ মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ দাবি জানান। ডা. বাহারুল আলম খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এবং খুলনা বিএমএর সভাপতি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ডা. বাহারুল আলম অভিযোগ করেন, ক্ষমতাসীন ব্যক্তিরা বিভিন্নভাবে ভোটারদের হুমকি দিচ্ছেন। তারা ভোটারদের সঙ্গে করে ভোট কেন্দ্রে নিয়ে যাবে এবং তাদের উপস্থিতিতে ভোট দিতে হবে জানিয়েছেন। শক্তির এমন নগ্ন প্রয়োগ ও ভোটারদের হুমকি নির্বাচনের মাঠে এক ভয়ের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। নির্বাচনে এসব আধিপত্য বিস্তার বন্ধ করা না গেলে কোনোক্রমে ১৭ অক্টোবরের জেলা পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ হারুনুর রশিদ খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি দলীয় মঞ্চ ব্যবহার করে প্রচারণা চালানোয় অন্য মতাদর্শের ভোটাররা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। তারা সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে আসতে পারবে কি-না এ নিয়ে রীতিমতো শঙ্কিত। এ সকল অনিয়মের পাশাপাশি কালো টাকা নির্বাচনকে জর্জরিত করতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিভিন্ন স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা ভোট দেন।