• ঢাকা
  • সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১১:৫১ অপরাহ্ন

খুলনায় বাস চলাচল বন্ধ : বিপাকে ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের চাকরিপ্রার্থীরা


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২০, ২০২২, ৯:১৭ অপরাহ্ন / ২১
খুলনায় বাস চলাচল বন্ধ : বিপাকে ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের চাকরিপ্রার্থীরা

মোস্তাইন বীন ইদ্রিস (চঞ্চল),খুলনা: খুলনা সমাজসেবা অধিদপ্তরের ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের চাকরির পরীক্ষা আগামীকাল শুক্রবার। কিন্তু ওই দিন সকাল থেকে বন্ধ থাকবে খুলনার সব রুটের বাস চলাচল। এতে বিপাকে পড়েছেন সমাজকর্মী পদের ওই চাকরিপ্রার্থীরা। জানা গেছে, ২২ অক্টোবর শনিবার খুলনায় বিএনপির গণসমাবেশ। ওই সমাবেশ সামনে রেখে সমাবেশের আগের দিন শুক্রবার ও সমাবেশের দিন শনিবার খুলনায় সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে খুলনা জেলা বাস, মিনিবাস, কোচ, মাইক্রোবাস মালিক সমিতি। যদিও সংগঠনটি বিএনপির সমাবেশকে সামনে রেখে বাস চলাচল বন্ধ রাখার বিষয়টি স্বীকার করতে চাচ্ছে না। তারা বলছে, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী সড়ক ও মহাসড়কে নছিমন, করিমন, ইজিবাইক বন্ধ রাখার দাবিতে ওই দুই দিন বাস চলাচল বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে।

খুলনা জেলা সমাজসেবা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালে ইউনিয়ন সমাজকর্মী নিয়োগের জন্য চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বান করা হয়। ২০২১ সালে দুবার ১৬তম গ্রেডের ওই পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েও শেষ পর্যন্ত তা বন্ধ হয়ে যায়। সর্বশেষ আবার ২১ অক্টোবর শুক্রবার পরীক্ষার তারিখ নির্ধারিত হয়েছে। সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত ৭০ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষা (এমসিকিউ) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ওই পরীক্ষায় খুলনা থেকে আবেদন করেছেন ১৩ হাজার ৩৭৬ জন। খুলনা শহরের ১৩টি কেন্দ্রে তাঁদের পরীক্ষা নেওয়া হবে।

প্রায় সাড়ে চার বছর আগে ওই চাকরির জন্য আবেদন করেছিলেন পাইকগাছা উপজেলার এনামুল হক। তিনি বর্তমানে ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। বিকেলেই সেখান থেকে খুলনার উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। এনামুল হক বলেন, চার বছর আগে যখন চাকরির আবেদন করেছিলাম, তখন কেবল পড়াশোনা শেষ হয়েছে। বর্তমানে সরকারি চাকরি পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার। তারপরও শুক্রবার ওই চাকরির পরীক্ষা দেওয়ার জন্য খুলনায় আসছি। ইচ্ছা ছিল রাতের গাড়িতে উঠে সকালে খুলনায় পৌঁছানো। তারপর পরীক্ষাকেন্দ্রে যাওয়ার। কিন্তু সকাল থেকে খুলনায় সব গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকবে শুনে বিকেলেই ঢাকা থেকে বের হয়েছি। এখন খুলনায় কোনো আত্মীয়ের বাসা বা হোটেলে থাকতে হবে।

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা থেকে এই পরীক্ষায় আবেদন করেছেন কমলেশ বৈরাগী। তিনি বলেন, আমি ডুমুরিয়া থেকে খুলনা শহরে যাওয়ার জন্য বাস ব্যবহার করি। শুক্রবার বাস চলবে না। আবার আমারও পরীক্ষা হবে। এখন ২০ কিলোমিটার পথ আমার ইজিবাইক বা অন্য কোনো যানবাহনে যেতে হবে। অন্তত পরীক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে শুক্রবার বাস না বন্ধ করলেও পারত।

খুলনা জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক খান মোতাহার হোসেন বলেন, একযোগে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলায় ওই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এটা পূর্বঘোষিত। ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। যেহেতু সকালে পরীক্ষা, তাই পরীক্ষার্থীরা হয়তো এক দিন আগেই বৃহস্পতিবার রাতের মধ্যেই খুলনা শহরে চলে আসবেন। এ কারণে পরীক্ষার্থীদের খুব বেশি সমস্যা হবে না।

খুলনা বাস মালিক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, খুলনা শহরের সোনাডাঙ্গা আন্তজেলা বাস টার্মিনাল থেকে প্রতিদিন ১৮টি রুটে প্রায় ১ হাজার ২০০টি বাস চলাচল করে।