• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:১৬ অপরাহ্ন

খুলনায় চাকরির নামে প্রতারণা চক্রের মুল হোতা তানভীরসহ র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার ৭


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৫, ২০২২, ৬:২৯ অপরাহ্ন / ১৫
খুলনায় চাকরির নামে প্রতারণা চক্রের মুল হোতা তানভীরসহ র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার ৭

মোস্তাইন বীন ইদ্রিস চঞ্চল,খুলনাঃ কেএমপির সোনাডাঙ্গা থানাধীন হাফিজ নগর এলাকায় গত শনিবার রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে গোয়েন্দা তৎপরতা ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে র‍্যাব-৬ স্পেশাল কোম্পানির একটি গোয়েন্দা টিম। এ সময় হাফিজ নগর এলাকার এন. এইচ টাওয়ারের ৬ষ্ঠ তলায় অবস্থিত অগ্নি কোম্পানি লিঃ এর অফিসে অভিযান চালিয়ে ফেসবুকে চমকপ্রদ চাকরির বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে শতশত তরুণ তরুণীর নিকট থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার মুল হোতা নামধারী অগ্নি কোম্পানির মালিক সৈয়দ তানভীর আহাম্মেদসহ (৩১) তার সহযোগী ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৬। গ্রেফতারকৃতরা হলো, মোঃ সাহাবুদ্দিন (৪০), মোঃ সোহেল (২৮), মোঃ রেজাউল করিম (৩০), মোঃ জাহিনুর ইসলাম (২০), মোঃ জহিরুল ইসলাম (২০), নাহিদ জাহান জুই(২৮)।চক্রটির মুল হোতা তানভীর আহাম্মেদ যশোর জেলার অভয়নগর থানাধীন নাউলি গ্রামের সৈয়দ আব্দুল গফফারের ছেলে।এই চক্রটি সুকৌশলে লোভনীয় বেতনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ফেসবুক সহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে শত শত তরুণ তরুণীদের অফিসে ডেকে এনে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে প্রথম আবেদন করার জন্য জনপ্রতি ১০০/ টাকা পরে ট্রেনিং ও জামানাতের কথা বলে জনপ্রতি ১০/১৫ হাজার করে টাকা হাতিয়ে নিতো এবং কোন প্রকার জামানাত নেওয়া হয়নি এরকম অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষর করিয়ে নিতো। কিন্তু কোন প্রকার ট্রেনিং বা কোন কাজে যোগদান না করিয়ে দিনের পর দিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত অফিসে আটকে রেখে মানসিক নির্যাতন করে এবং নারী প্রার্থীদের দিয়ে বাসন মাজা,ভাত রান্না করা ও রুমের ফ্লোর মোছার কাজও করিয়েছে। জামানাতের টাকা ফেরত চাইলে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখাতো এবং তাদের মত অন্য তরুণ তরুণীদের প্রলোভন দেখিয়ে অফিসে ডেকে আনতে বাধ্য করতো।এসব কথা বলছিলেন এই চক্রের ফাঁদে পা দিয়ে আর্থিক ও মানসিক হয়রানি হওয়া ভূক্তভোগীরা।এ সময় হয়রানি শিকার ভূক্তভোগীরা এই চক্রের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানিয়েছেন।গ্রেফতসকৃতদের নিকট থেকে ১০টি মোবাইল ফোন, ৪টি ল্যাপটপ, ৪০টি ভর্তি ফর্ম, ৪৫টি অঙ্গীকারনামা, ১টি সিসি ক্যামেরা ডিভাইস, ৪টি রেজিষ্টার, ৫৪,২১০/নগদ টাকা জব্দ করেন র‍্যাব-৬। আটককৃতদের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারণা আইনে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে এই মর্মে গতকাল রবিবার সকাল ১১:৩০ টায় খুলনার র‍্যাব-৬ এর অফিসে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ সকল তথ্য নিশ্চিত করেছেন লেঃ কমান্ডার মোঃ সারোয়ার হোসাইন।