• ঢাকা
  • শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৪:৩১ অপরাহ্ন

খুলনার পাইকগাছায় প্রতিপক্ষের মারপিটে স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আহত : থানায় এজাহার


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১১, ২০২৩, ৩:০০ অপরাহ্ন / ১২৪
খুলনার পাইকগাছায় প্রতিপক্ষের মারপিটে স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আহত : থানায় এজাহার

মোঃ মানছুর রহমান জাহিদ, পাইকগাছা, খুলনাঃ খুলনার পাইকগাছায় পুর্ব শত্রুতার জেরে হারুন শেখ ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ফাতেমাকে মারপিট করে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ দম্পতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৮ সেপ্টেম্বর সকালে উপজেলার গদাইপুর ইউপির পুরাইকাটি গ্রামে। এ ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা ফাতেমার মা জাহানারা বেগম বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়ের করেছেন। থানায় এজাহার দায়ের হলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। থানার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, পারিবারিক বিষয় নিয়ে রবিউল শেখ পরিবারের সাথে প্রতিবেশী মৃত ছোরমান শেখের ছেলে হারুন শেখদের সাথে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে গত ৮ই সেপ্টেম্বর সকালে মৃত কোরমান শেখের দুই ছেলে হযরত শেখ (কনা) ও তার ভাই রবিউল (৩৭) দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হয়ে হারুনের বাড়িতে হামলা চালায়। তাদের অতর্কিত হামলায় হারুন শেখ (২৮) ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ফাতেমা (২৩) আহত হয়।

অভিযোগ উঠে, ঘটনার সময় সহায়- সম্পত্তির ক্ষতিসাধন ও স্বর্ণ অলংকার ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধূ অন্তঃসত্ত্বা ফাতেমা বেগম জানান, প্রতিবেশী হযরত শেখ ওরফে কনা (৪০) বিভিন্ন সময় আমাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে সংসার ভাঙ্গার চেষ্টা করে আসছে। আমি করা ভাষায় এর প্রতিবাদ করলে তর্কবিতর্কের জেরে তারা আমাকে ও আমার স্বামীকে বেধড়ক মারপিট করে জখম করে এবং আমার শ্লীলতাহানি ঘটায়। এখন আমি শংকিত আমার অনাগত সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য।আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

এ বিষয়ে থানার ওসি (তদন্ত) তুষার কান্তি দাস জানান, মারপিটের ঘটনা একটি এজাহার পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান।