• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩০ অপরাহ্ন

খালেদা জিয়া ইস্যুতে নয়াপল্টনে সমাবেশ করছে বিএনপি


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৩০, ২০২১, ২:৩১ অপরাহ্ন / ১৩৫
খালেদা জিয়া ইস্যুতে নয়াপল্টনে সমাবেশ করছে বিএনপি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা: খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং দেশের বাইরে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করছে বিএনপি। মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) দুপুর ১টায় এ সমাবেশ শুরু হয়েছে। পূর্ব ঘোষিত বিভাগীয় সমাবেশের অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগর বিএনপি এ সমাবেশ আয়োজন করেছে। সমাবেশে যোগ দিতে সকাল থেকেই ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপির নেতাকর্মী, সমর্থকরা নয়াপল্টনে এসে জড়ো হতে থাকে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নেতাকর্মীদের সংখ্যাও বাড়তে থাকে। এই মুহূর্তে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়ক নির্মিত অস্থায়ী মঞ্চ এবং এর আশপাশে কয়েক হাজার নেতাকর্মী অবস্থান নিয়েছেন। দলের চেয়ারপারসনের মুক্তি এবং উন্নত চিকিৎসার দাবিতে স্লোগান দিচ্ছেন তারা। বিএনপির সমাবেশ ঘিরে পুলিশ ও আইন-শৃঙ্খলা প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে তারা। প্রিজন ভ্যান, রায়টকার, জলকামানসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে নয়াপল্টন ও আশপাশের এলাকায়। সকাল থেকেই নয়াপল্টন, পুরানাপল্টন, ফকিরেরপুল, কাকরাইল, শান্তিনগর ও সেগুনবাগিচার মোড়ে মোড়ে পুলিশ অবস্থান নিয়েছেন। সমাবেশের উদ্দেশে আসা বিএনপির নেতাকর্মী ও সাধারণ পথচারীদের সঙ্গে কথা বলছেন তারা।

এই মুহূর্তে সমাবেশে উপস্থিত আছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম মজনু, উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক প্রমুখ।অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত আছেন—ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা শাহ নেছারুল হক, সদস্য সচিব মাওলানা নজরুল ইসলাম তালুকদার, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, কৃষক দলের সভাপতি হাসান জাফির তুহিন, সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, জাসাসের আহ্বায়ক হেলাল খান, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি আনিসুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করছেন বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী ও সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম।গুরুতর অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়া রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে সিসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর আগে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এবছর এপ্রিল থেকে মে পর্যন্ত টানা ৫৪ দিন হাসপাতালে ছিলেন তিনি। খালেদা জিয়া বহু বছর ধরে আর্থ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, কিডনি, ফুসফুস, চোখের সমস্যাসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন। নতুন করে তিনি লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত হয়েছেন। দুর্নীতির মামলায় দণ্ড নিয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান। দেশে করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর পর পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত বছর ২৫ মার্চ ‘মানবিক বিবেচনায়’ তাকে শর্তসাপেক্ষে মুক্তি দেয় সরকার। তখন থেকে তিনি গুলশানের ভাড়া বাসা ফিরোজা’য় রয়েছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে নেওয়ার অনুমতি চেয়ে বেশ কয়েকবার আবেদন করেছে তার পরিবার। কিন্তু সরকার সেই আবেদন আমলে নেয়নি। এ ব্যাপারে আইনমন্ত্রীর বক্তব্য হলো- সাময়িক মুক্তির শর্ত অনুযায়ী তাকে দেশে রেখেই চিকিৎসা দিতে হবে। বিদেশে যেতে হলে কারাগারে ফিরে আবেদন করতে হবে।