বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৬:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
২৪ কোটি টাকা কর ফাঁকি দিয়ে আমদানি করা বিলাসবহুল রোলস রয়েসে গাড়ি জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর নায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত ও বিধি বহির্ভূতভাবে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ এর দায়ে গ্রামীণ টেলিকমের দুই নেতাকে গ্রেফতার রাজধানীর সায়েদাবাদ-যাত্রাবাড়ী থেকে ৮ ছিনতাইকারী গ্রেফতার রাজধানীতে ছিনতাইকারীর কবলে পরে আজ নিঃশ্ব ফটো সাংবাদিক রুবিনা শেখ প্রেমের টানে ঘর ছাড়ে সিরাজুল ইসলাম ও খুকি আক্তার আমিন-ফাতেমা দম্পতির কাছে লভ্যাংশসহ পাওনা ছিল ৩ কোটি টাকা জয়পুরহাট কালাইয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬৫ বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার  জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে ১০০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ একজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  সাহিত্য চর্চার মাধ্যমে হেনোলাক্স গ্রুপের মালিক নুরুল আমিনের সঙ্গে পরিচয় হয়  আত্মহত্যাকারী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী গাজী আনিসের এক মাসে ৩টি সম্মাননা পেলেন সুলতানা রোজ নিপা

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত আরো ১ লক্ষ ৭৯ হাজার ২১ জন খামারি পেলেন ২১৬ কোটি ৮৬ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা নগদ প্রণোদনা

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১
  • ১১৭ Time View

মনিরুজ্জামান অপূর্ব,ঢাকা : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত আরো ১ লক্ষ ৭৯ হাজার ২১ জন খামারিকে ২য় ধাপে ২১৬ কোটি ৮৬ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা নগদ প্রণোদনা দিয়েছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

রবিবার (২৭ জুন) বিকেলে রাজধানীর ফার্মগেটে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রণোদনা প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

প্রণোদনা প্রদান অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, “মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতের খামারিদের অতীতে কখনোই আমরা প্রণোদনা দিতে পারিনি। এর একটা শুভ সূচনা এবছর আমরা করলাম, যার পুরো কৃতিত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। তিনি নির্দেশনা দিয়েছেন, আমাদের অনুপ্রাণিত করেছেন। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতকে টিকিয়ে রাখার জন্য সরকার বিভিন্ন রকম উদ্যোগ নিয়েছে। এ দুটি খাতকে কিভাবে সম্প্রসারিত করা যায় সেজন্য সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।”

তিনি এসময় আরো বলেন, “করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত খামারিরা যাতে ঘুরে দাঁড়াতে পারে সেজন্য আমরা প্রণোদনা কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। ৬ লক্ষ ৯৮ হাজার ৭৪ জন খামারিকে ৮৪৬ কোটি টাকা প্রণোদনার সংস্থান রাখা হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম ধাপে ৪ লক্ষ ৭৬ হাজার ৮১ জন খামারিকে ৫৫৭ কোটি ৩৮ লক্ষ ২০ হাজার ৭৪ টাকা নগদ প্রণোদনা দেওয়া হয়েছে। ২য় ধাপে ১ লক্ষ ৭৯ হাজার ২১ জন খামারিকে ২১৬ কোটি ৮৬ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এরপরও যাচাই-বাছাই করে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত অবশিষ্ট খামারিদের প্রণোদনা দেয়া হবে। লক্ষ্য একটাই মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাত যাতে কোনভাবেই স্তিমিত হয়ে না যায়। ভেঙ্গে না পড়ে। আশা করি এ প্রণোদনা দিয়ে খামারিরা ঘুরে দাঁড়াতে পারবে। শেখ হাসিনা সরকার খামারিদের পাশে আছে।”

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডাঃ শেখ আজিজুর রহমান ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজ। মন্ত্রণালয় এবং মৎস্য অধিদপ্তর ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ ও মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতের বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 ajkerbd24.com
Design & Development By: Atozithost
Tuhin