সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৬:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে মুগদা থানা পুলিশ পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু হাত দিয়ে খোলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে সিআইডি জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ৩০০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  পদ্মা সেতু চালু হলেও সাতক্ষীরার পরিবহন এখনও পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে পারছে না মধ্যনগরে অতিরিক্ত ডি আই জি মিজানুর রহমান কতৃক বানভাসি মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ সোমবার ভোর থেকে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল নিষিদ্ধ বিশেষ ঘোষনাঃ পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলা নিষিদ্ধ করেছে সেতু কতৃপক্ষ।আগামী কাল ২৭ জুন সকাল ৬টা থেকে এই নির্দেশ কার্যকর হবে। যশোরের শার্শায় ইউপি সদস্য বাবলু হত্যার প্রধান আসামি সহযোগীসহ আটক প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইলেন দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত টুঙ্গিপাড়ার শিক্ষক মিল্টন তালুকদার হাত দিয়ে পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা যুবক আটক

এবার পাবজি, ফ্রি ফায়ার গেমের লিংক বন্ধ করল বিটিআরসি

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৫ আগস্ট, ২০২১
  • ২৭৭ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আদালতের আদেশ পাওয়ার পর বাংলাদেশে পাবজি, ফ্রি ফায়ারের মতো ‘বিপজ্জনক’ ইন্টারনেট গেমের লিংক বন্ধ করে দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, ডিপার্টমেন্ট অব টেলিকমকে (ডট) এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। ইতিমধ্যে পাবজি ও ফ্রি ফায়ার বন্ধ হয়ে গেছে। অন্য ‘ক্ষতিকর’ অ্যাপগুলোও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘টিকটক, বিগো লাইভ ও লাইকি আরও বেশ কিছু অ্যাপ বাংলাদেশে বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এখন অ্যাপগুলোর লিংক বন্ধ করলেও ভিপিএন দিয়ে চালানো যায়। এসব বন্ধ করার মতো সক্ষমতা আমাদের নেই। অ্যাপগুলোর কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি দিয়েও আমরা বাংলাদেশে সেগুলো বন্ধের অনুরোধ জানাব।’
বিটিআরসির একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আগে কোনো অ্যাপ বা ওয়েবসাইট বন্ধ করতে হলে ইন্টারনেট গেটওয়ে, ব্রডব্যান্ড ও মোবাইল অপারেটরদের নির্দেশনা দিতে হত। এখন ডিপার্টমেন্ট অব টেলিকম নিজেই এ কাজ করতে পারে।

গত ১৬ অগাস্ট দেশের অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে পাবজি, ফ্রি ফায়ারসহ এ ধরনের ‘বিপজ্জনক’ সব গেম তিন মাসের জন্য বন্ধের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এসব অনলাইন গেম ও টিকটক, লাইকির মতো ভিডিও স্ট্রিমিং অ্যাপ বন্ধের নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, তা জানতে রুল জারি করা হয়।

রুলে আরও জানতে চাওয়া হয়, এ ধরনের অনলাইন গেম এবং অনলাইন স্ট্রিমিং অ্যাপ নিয়মিতভাবে পর্যবেক্ষণ, পর্যালোচনা করার জন্য একটি কারিগরি দক্ষতাসম্পন্ন বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন এবং এ বিষয়ে একটি নীতিমালা তৈরির নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না।
রুলে বিবাদী করা হয়- ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যান, শিক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, স্বাস্থ্য সচিব এবং পুলিশের মহাপরিদর্শককে।
দেশের শিশু-কিশোর, তরুণ প্রজন্মের মধ্যে এসব গেম ও অনলাইন ভিডিও স্ট্রিমিং অ্যাপের ‘বিরূপ প্রভাব’ তুলে ধরে গত ১৯ জুন সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবী বিবাদীদের কাছে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন। তাতে সাড়া না পেয়ে গত ২৪ জুন হাইকোর্টে ওই রিট আবেদন করেন তারা।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 ajkerbd24.com
Design & Development By: Atozithost
Tuhin