• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন

ঈদের দ্বিতীয় দিনও চলছে পশু কোরবানি


প্রকাশের সময় : জুলাই ১১, ২০২২, ২:১৬ অপরাহ্ন / ৪৮
ঈদের দ্বিতীয় দিনও চলছে পশু কোরবানি

মোঃ রাসেল সরকারঃ সোমবার (১১ জুলাই) ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিন। সারাদেশে ঈদের দ্বিতীয় দিনও চলছে পশু কোরবানি। সকালে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার পাড়া-মহল্লা ও প্রধান সড়কে পশু কোরবানি দিতে দেখা গেছে। ঈদের দিনের মতোই উৎসবমুখর পরিবেশে পশু কোরবানি করছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

ইসলামের বিধান অনুযায়ী, ঈদের দিন ছাড়াও আ‌রো দু‌দিন তথা জিলহজ মাসের ১১ তারিখ (ঈদের দ্বিতীয় দিন) ও ১২ তারিখও (ঈদের তৃতীয় দিন) সূর্যাস্তের আগ পর্যন্ত কোরবানি করার সুযোগ রয়েছে। এই বিধানের আলোকে দ্বিতীয় দিন অনেকে পশু কোরবানি করছেন। ত্যাগের মহিমা এবং মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য কেউ একাধিক কোরবানি দিচ্ছেন। আবার কেউ পারিবারিক ঐতিহ্য রক্ষায়, কেউ আবার ব্যবসা ও কাজের চাপ এবং কসাইয়ের অভাবে ঈদের দিন পশু জবাই দিতে পারেননি, তারাই দ্বিতীয় দিনে কোরবানি দিচ্ছেন।

দ্বিতীয় দিনের কোরবানির সংখ্যা পুরান ঢাকায় বেশি হলেও রাজধানীর অন্যান্য এলাকায়ও দেখা গেছে কোরবানির ব্যস্ততা। ঈদের দ্বিতীয় দিন পশু কোরবানি দিচ্ছেন রাজধানীর সবুজবাগের আব্দুল মর্শেদ। তিনি জানান, আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য আমাদের পারিবারিক ঐতিহ্য হিসাবে প্রতিবছর তিনটি গরু কোরবানি দেই। একটি ঈদের দিন কোরবানি করেছি। আজ একটা দিচ্ছি; আগামীকালও আরেতকটা কোরবানি করব। দোয়া করবেন আল্লাহ যেন আমাদের কোরবানি কবুল করেন।

পুরান ঢাকার বংশাল এলাকার বাসিন্দা শামীম খান বলেন, ‘গরু কিনছি ঈদের আগের দিন রাতে। ঈদের দিন কসাই পাই নাই। ঈদের পরে দুই দিনও কোরবানি দেওয়া যায়। এজন্য আজ কোরবানি দিচ্ছি।’ উত্তর বাড্ডা এলাকার বাড়ির সামনে রাস্তার পাশেই পশু কোরবানি দিয়েছেন রাশেদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আমরা দুই ভাই দুটি গরু এনেছিলাম। এক সঙ্গে কাটতে সমস্যা, লোকবলের অভাব। তাই ঈদের দিন বড় ভাইয়ের গরু কোরবানি দিয়েছি। আজ আমারটা কোরবানি করছি। রাজধানীর মানিকনগর এলাকার মাদ্রাসার ছাত্র আশরাফুল ইসলাম।

তিনি জানান, ঈদের দিন ১৬টি গরু ও ৫টি ছাগল জবাই করেছি। আজকে (ঈদের দ্বিতীয় দিন) সকাল থেকে এখন পর্যন্ত ৪টি গরু ও একটি ছাগল জবাই করে দিয়েছি।

রাজধানীর মৌসুমি কসাই জুয়েল জানান, ঈদের দিন তিনটি গরু দুটি খাসি জবাই করেছি। আজকে দুটির অর্ডার আছে। একটি বানানোর কাজ চলছে। শেষ হলে আরেকটি ১২টার দিকে কাটব। মুসলমানদের প্রধান দুটি ধর্মীয় উৎসবের একটি ঈদুল আজহা। সারাবিশ্বের মুসলমানরা মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি ও করুণা লাভের জন্য হজরত ইব্রাহিমের (আ.) পুত্রকে কোরবানির প্রতীকী ত্যাগের ঐতিহ্য অনুসরণে ১০ জিলহজ পশু কোরবানি দিয়ে থাকেন।