• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩১ পূর্বাহ্ন

ইজতেমায় আগতদের নিরাপত্তা এটা আমাদের ঈমানী এবং সাংবিধানিক দায়িত্ব——–জিএমপি কমিশনার


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২১, ২০২৩, ৫:২৫ অপরাহ্ন / ১১
ইজতেমায় আগতদের নিরাপত্তা এটা আমাদের ঈমানী এবং সাংবিধানিক দায়িত্ব——–জিএমপি কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক,গাজীপুরঃ গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি) কমিশনার মোল্ল্যা নজরুল ইসলাম বলেছেন, আল্লাহর ধ্যানে যারা আরাধনা করছে তাদেরকে নিরাপত্তা বিধান করছি। এটা আমাদের ঈমানী এবং সাংবিধানিক দায়িত্ব। আগামীকাল রবিবার (২২ জানুয়ারী) দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত হবে। এখনো পর্যন্ত যেটা জানি সকাল ১০ টার দিকে আখেরি মোনাজত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

শনিবার সকাল পৌণে ১১ টায় ইজতেমা মাঠের পুলিশ কন্ট্রোল কেন্দ্রে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, প্রথম পর্বের মোনাজাতের দিন যেটা করেছি অর্থাৎ দ্বিতীয় পর্বেও একই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। টঙ্গী থেকে ভোগড়া পর্যন্ত এবং কামারপাড়া ব্রিজ থেকে মুন্নু গেট পর্যন্ত সড়ক বন্ধ থাকবে। সেই ক্ষেত্রে ডাইভারসন দিয়ে দিব। ভোগড়া থেকে তিন’শ ফিটের সড়ক বাইপাস থাকবে। ঢাকা এবং ময়মনসিংহগামী যানবাহন এ সড়ক দিয়ে চলাচল করবে। ইজতেমায় আগত মুসুল্লি এবং মোনাজাতে অংশগ্রহনেচ্ছু লোকদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সমবসময় সতর্ক রয়েছে।

মোনাজাতের দিন ট্রেন চলাচল বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সরকার বাহাদুর বাস ও ট্রেনের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রেখেছে। লোকজন যেন এসব ট্রেন দিয়ে স্বাভাবিকভাবে আসা-যাওয়া করতে পারে সে ব্যাপারে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশসহ অন্যান্য সংস্থার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা নিয়োজিত রয়েছে। এসব কাজে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করছে। এই কাজ আমরা সমন্বিতভাবে একসাথে করছি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি’র) উপ-কমিশনার (অর্থ) ইলতুৎমিস, অপরাধ বিভাগের উপ-কমিশনার (দক্ষিন) মাহবুবুজ্জামান, উপ-কমিশনার (বিশেষ শাখা) আরিফুর রহমান, গোয়েন্দা (ডিবি) বিভাগের উপ-কমিশনার (উত্তর) মোহাম্মদ ইব্রাহিম হোসেন, গোয়েন্দা (ডিবি) বিভাগের উপ-কমিশনার (দক্ষিন) মোহাম্মদ হুমায়ুন সহকারী কমিশনার (দক্ষিন) হাফিজুর রহমান, সহকারী কমিশনার (সদর ও অর্থ) হাসিবুল আলম, টঙ্গী জোনের সহকারী কমিশনার মেহেদী হাসান এবং মাকসুদুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট থানার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।