• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৪৬ পূর্বাহ্ন

ইউনিফর্ম পরে টিকটক করার দায়ে শাস্তির মুখে ৮ নারীসহ মোট ১৩ পুলিশ সদস্য


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২১, ২০২২, ৮:১৬ অপরাহ্ন / ১২
ইউনিফর্ম পরে টিকটক করার দায়ে শাস্তির মুখে ৮ নারীসহ মোট ১৩ পুলিশ সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ পুলিশের পোশাক পরে সর্ট ভিডিও প্ল্যাটফর্ম টিকটকে ভিডিও করায় আট নারীসহ ১৩ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) এ কে এম হাফিজ আক্তার। এর আগে গত ৬ অক্টোবর ডিএমপি কমিশনারের পক্ষে উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর দপ্তর ও প্রশাসন) আব্দুল মোমেনের স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ ১৩ সদস্যের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সাত জেলাসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে চিঠি দেওয়া হয়েছে। শাস্তির মুখোমুখি হওয়া সদস্যরা আগে ডিএমপিতে কর্মরত থাকলেও বর্তমানে জেলাসহ পুলিশের বিভিন্ন সংস্থায় কর্মরত রয়েছেন।

চিঠিতে উল্লেখ করা ১৩ পুলিশ সদস্যদের মধ্যে একজন নায়েক ও ১২ জন কনস্টেবল পদমর্যাদার। তারা হলেন, কনস্টেবল আইরিন আক্তার (পিরোজপুর), আয়েশা বেগম (টাঙ্গাইল), সমাপ্তি ইসলাম (পিটিসি, রংপুর), আবু হানিফা নিপু (হবিগঞ্জ), রিপন চাকমা (আরআরএফ, চট্টগ্রাম), রিমন বড়ুয়া (আরআরএফ, চট্টগ্রাম), মো. রায়হান উদ্দিন (আরআরএফ, চট্টগ্রাম), কামরুন্নাহার আক্তার (নোয়াখালী), শাহানা পারভীন শম্পা (মাগুরা), মোছা. রশনি ইয়ারা (পিটিসি, টাঙ্গাইল), রেজাউল করিম (আরআরএফ, চট্টগ্রাম) ও মো. আশিকুল হক (ঝালকাঠি) ও নায়েক সাকিরা আক্তার (হবিগঞ্জ)। এর আগে টিকটক ও লাইকিসহ বিভিন্ন অ্যাপে ভিডিও শেয়ারের ক্ষেত্রে সতর্কতা মূলক নির্দেশনা জারি করে ডিএমপি।

ওই নির্দেশনায় বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে রাষ্ট্রবিরোধী ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন উসকানিমূলক বক্তব্য প্রচার করছেন। পুলিশের ইউনিফর্ম পরে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ার মতো অঙ্গভঙ্গি করে ভিডিও ধারণ করে তা টিকটক হিসেবে আপলোড করা হয়। এ ধরনের কার্যকলাপ রোধে পোস্টদাতাকে চিহ্নিত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। নির্দেশনায় ডিএমপির প্রতিটি ফোর্সের ইনচার্জদের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করতে বলা হয়েছে। এতে আরও বলা হয়, পুলিশের পোশাক পরে অথবা পুলিশ বিষয়ক কোনো পোস্ট ফেসবুকে আপলোডের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। এ ছাড়া সরকারি প্রতিষ্ঠানের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহার নির্দেশিকা-২০১৯ মেনে চলতে হবে। আদেশে উল্লেখ করা হয়, পুলিশের ইউনিফর্ম পরে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ার মতো অঙ্গভঙ্গি করে ভিডিও ধারণ করে তা টিকটক হিসেবে আপলোড করা হয়। ওই ভিডিও কন্টেন্টগুলোতে অনেকের নেতিবাচক মন্তব্য রয়েছে।

বিভাগীয় ব্যবস্থার বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) হাফিজ আক্তার বলেন, ডিএমপিসহ পুলিশ সদস্যদের সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের একটি নির্দেশনা রয়েছে। যারা এই নির্দেশনা ভঙ্গ করেছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ডিউটিরত অবস্থায় স্মার্টফোন ব্যবহারের কারণে এমন কাজ বাড়ছে। তাই কর্তব্যরত অবস্থায় স্মার্টফোন ব্যবহার বন্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না জানতে চাইলে হাফিজ আক্তার বলেন, আমরা সব সময় কর্তব্যরত অবস্থায় স্মার্টফোন ব্যবহারে নিরুৎসাহিত করা হয়। এ বিষয়ে আরও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।