• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ Jul ২০২৪, ০৬:৩১ পূর্বাহ্ন

আরোও ৩টি রাস্তা প্রকল্পভুক্ত : পূরন হলো খুলনার পাইকগাছার হোগলারচকে রাস্তা’র দাবি


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২৩, ১১:৫৯ অপরাহ্ন / ১৩৩
আরোও ৩টি রাস্তা প্রকল্পভুক্ত : পূরন হলো খুলনার পাইকগাছার হোগলারচকে রাস্তা’র দাবি

মোঃ মানছুর রহমান জাহিদ, পাইকগাছা, খুলনাঃ খুলনার পাইকগাছার গড়ইখালী’র হোগলারচকে দীর্ঘদিনের পাঁকারাস্তা’র স্বপ্ন পূরনের সাথে-সাথে স্থানীয় আরোও ৩টি রাস্তা উন্নয়ন প্রকল্পভুক্ত হয়েছে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সুত্র জানান, নতুন প্রকল্পভুক্ত রাস্তা হলো হোগলারচক সরঃ প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে বাইনবাড়ীয়া নির্মানাধীন ব্রীজ পর্যন্ত ডবল ইটের সোলিং ও গড়ইখালী সরদার বাড়ি হতে দঃ দিকে কেয়াররাস্তা অভিমুখি ১কিঃ কার্পেটিং ও কেয়ারের মাথা হতে থান্ডারবাড়ী হোগলারচক পর্যন্ত ১কিঃ কার্পেটিং (পিচের রাস্তা) প্রকল্প অনুমোদনের অপেক্ষায়।

জানা গেছে, মুক্তিযুদ্ধের পর থেকে এ পর্যন্ত ঘোষখালী (বদ্ধ) নদী ঘেষা হোগলারচকের মানুষের পথচলা ছিলো জল-কাঁদা’র একমাত্র কাঁচা রাস্তা। বর্ষাকালে নারী-শিশু ও বয়স্ক মানুষের পথ চলাচলে বিপদের শেষ ছিলনা।

জানা গেছে, একাদশ সংসদ নির্বাচনে খুলনা-৬ ( পাইকগাছা-কয়রা) আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু গনসংযোগকালে ঘোষনা দেন আমি নির্বাচিত হলে গড়ইখালী’র হোগলারচক বাসীর পাঁকা রাস্তার দাবি ও এলাকার উন্নয়নে সাধ্যমত ভূমিকা রাখবো। সেই প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ২২-২৩ অর্থবছরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর প্রায় ১কোটি টাকা ব্যয়ে গড়ইখালী কলেজ খেয়াঘাট মোড় হতে হোগলারচক সরঃ প্রাথমিক বিদ্যালয় অভিমুখি ১৬শ ৩০ মিঃ ডবল ইটের রাস্তা নির্মান সম্পন্ন হয়েছে। সাতক্ষিরার আঃ হাকিমের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেছেন।

এ বিষয়ে হোগলারচকের বাসিন্দা গড়ইখালী ইউপি’র প্যানেল চেয়ারম্যান ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা শরৎ চন্দ্র মন্ডল জানান, নির্বাচিত হয়ে এমপি মহোদ্বয় হোগলাচকের মানুষের কাছে দেওয়া তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরন করলেন। এলাকাবাসীর পক্ষে এমপি’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। তিনি আরো বলেন, আক্তারুজ্জামান বাবু এমপি গড়ইখালী ইউনিয়নে একাধিক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে এবং নতূন- নতূন প্রকল্প অনুমোদের অপেক্ষায় আছে।

এ বিষয়ে গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান জি,এম আব্দুস ছালাম কেরু জানান, এমপির অক্লান্ত প্রচেষ্টায় গড়ইখালী ইউনিয়নে হোগলারচকের সদ্য নির্মিত ইটের সোলিং, কুমখালী, বাইনবাড়ীয়া, বগুড়ারচক বিভিন্ন পিচের রাস্তা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে অর্থায়নসহ ঘোষখালী নদীর উপর ব্রীজ নির্মান হচ্ছে। তিনি আরোও বলেন, চলমান প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন হলে এলাকায় বিশেষ করে কৃষি অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটবে।