• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

আধ্যাত্মিকতা জাগরণের অনন্য কিংবদন্তী হযরত গাউছুল আজম রাদিয়াল্লাহু আনহু


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৩০, ২০২২, ১১:৩৬ অপরাহ্ন / ২২
আধ্যাত্মিকতা জাগরণের অনন্য কিংবদন্তী হযরত গাউছুল আজম রাদিয়াল্লাহু আনহু

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ প্রিয় নবীজির সুমহান আদর্শ থেকে মানুষ দূরে সরে গিয়েছে বলে মুসলিম জাহান আজ বিপদগ্রস্ত। গুনাহের মরিচা মানুষের ক্বলবকে অন্ধকারাচ্ছন্ন করে ফেলেছে। ফলে ইবাদাতের প্রকৃত স্বাদ থেকে মানুষ বঞ্চিত। আধ্যাত্মিকতা থেকে দূরে সরে নফসানিয়াতে ডুবে হারিয়ে গিয়েছে আমলী জিন্দেগি, দুর্বল হয়ে গেছে ঈমানের শক্তি। অথচ চৌদ্দশত বছর পূর্বে ইসলামের সোনালী আলোয় উদ্ভাসিত হয়ে মানুষ এ সমস্ত পাপাচার থেকে মুক্তি পেয়েছিল। প্রিয় নবীজির আদর্শ বাস্তবায়ন, সুন্নাতে মোস্তফার অনুশীলন, পবিত্র কোরআনের ফয়েজকে বক্ষে ধারণ করে মানুষ ইহকালীন ও পরকালীন জীবনে সাফল্যম-িত হয়েছিল। যুগান্তরের ঘুর্নিপাকে হাল আমলে এসে মানুষ সেই সোনালী ইতিহাস ভুলে গিয়ে গাফিলতির নিদ্রায় যখন সংজ্ঞাহীন, তখন খলিলুল্লাহ আওলাদে মোস্তফা, খলিফায়ে রাসুল (দ.) হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম রাদিয়াল্লাহু আনহু ঘোষণা দিলেন, ‘হে যুবক! রোজা রাখ, নামাজ পড়, প্রিয় নবী (দ.) এঁর উপর দরূদ পড়, মাতৃভূমি শান্ত কর!” তিনি ফয়েজে কোরআন, তাওয়াজ্জুহ বিল হাজের, তাওয়াজ্জুহ বিল গায়েব এর মাধ্যমে নবীজির নূরে বাতেন দিয়ে আভ্যন্তরীণ পরিশুদ্ধি, মোরাকাবা এবং নবীজির মুহাব্বত নিয়ে দরূদে মোস্তফা (দ.) পাঠ, সর্বোপরি জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে রাসুলুল্লাহ (দ.) এর আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমে মানবিক সমাজ বিনির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি ছিলেন আধ্যাত্মিকতা জাগরণের অনন্য কিংবদন্তী।

গত ৩০ ডিসেম্বর ২০২২ শুক্রবার বাদে জুমা চট্টগ্রাম নগরীর বহদ্দারহাট পানি উন্নয়ন বোর্ড জামে মসজিদ সম্মুখস্থ ময়দানে
মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগর সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত এশায়াত মাহফিলে উপস্থিত হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমানের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের মহান মোর্শেদ, আওলাদে রাসুল (দ.) হযরতুলহাজ্ব আল্লামা অধ্যক্ষ শায়খ ছৈয়্যদ মাননীয় মোর্শেদে আজম মাদ্দাজিল্লুহুল আলী ছাহেব এসব কথা বলেন।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট ও সিনেট সদস্য এবং মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুর এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আলহাজ্ব মোহাম্মদ নুর খাঁন, ৪ নং চাঁদগাও ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ এসরারুল হক, ৬ নং পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর লায়ন মুহাম্মদ আশরাফুল আলম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গণিত বিভাগের প্রফেসর ড.জালাল আহমেদ,১৭ নং পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহবায়ক আকবর আলী আকাশ , ৬নং পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাবুল, চট্টগ্রাম দৃষ্টি মাদকাসক্ত পূনর্বাসন কেন্দ্র চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মঈনউদ্দিন ফরহাদ। বক্তব্য রাখেন মাওলানা মুহাম্মদ এরশাদুল হক, মাওলানা মুহাম্মদ শফিউল আলম,মাওলানা মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, মাওলানা মুহাম্মদ জসিম উদ্দীন নূরী প্রমূখ।
মাহফিলে এলাকার অনেক গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও স্থানীয় ব্যবসায়ী, সমাজসেবক, শিক্ষাবিদ, ওলামায়ে কেরামসহ হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান উপস্থিত ছিলেন।
মিলাদ ও কিয়াম শেষে প্রধান অতিথি দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ্র ঐক্য, সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি, এবং দরবারের প্রতিষ্ঠাতা গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হুর ফুয়ুজাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন।