• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:০১ অপরাহ্ন

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেও জনগণের সেবা করা সম্ভব – অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ৯, ২০২৩, ৯:১৫ অপরাহ্ন / ৩৬
আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেও জনগণের সেবা করা সম্ভব – অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা

মোঃ বাবলু মল্লিক,নড়াইলঃ নড়াইলের নড়াগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি মানুষের জান, মাল রক্ষা করে জনগণের সেবা করে যাচ্ছেন। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, জুয়া খোর, চোর-ডাকাত, মাদক ব্যবসায়ী, এলাকার শান্তি বিনষ্টকারীদের যম হয়ে দিন রাত আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করছেন।

অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা নড়াগাতী থানায় যোগদানের আগে নড়াইল ডিবি গোয়েন্দা শাখায় ওসির দায়িত্ব দক্ষতা ও সুনামের সাথে পালন করেছেন। তিনি গত ৯ জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিঃ নড়াগাতী থানায় যোগদান করে ১বছর দক্ষতার সঙ্গে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে অনেক নজির রেখেছে। সুকান্ত সাহার নেতৃত্বে এ পর্যন্ত আসামি গ্রেফতার করেছে ১৬১জন। সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার করেছে ১৪ জন, সাধারণ গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি গ্রেফতার করেছে ১২৯জন, মাদকের মামলার আসামি গ্রেফতার করেছে ১১৮ জন, নাশকতার মামলার আসামি গ্রেফতার করেছে ৬ জন, ভ্রাম্যমাণ আদালত করেছে ৮৯টি ভ্রমণের আসামি ১৬১ জন, ভিন্ন মেয়াদে সাজা হয়েছে ৩৫ জনের, ৩ লক্ষ ৬৯ হাজার ৯শত টাকা মাদক উদ্ধারে ও যথেষ্ট ভুমিকা রেখেছে।

এলাকার অসহায় ও নির্যাতিত মানুষের পাশে থেকে পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছে। বিভিন্ন সম্প্রদায়ের সাম্প্রতিক দাঙ্গা হাঙ্গামার ঘটনা মোকাবেলা করতে নড়াগাতী থানার প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক সহ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে মোকাবেলা করেছে। নড়াগাতী থানার প্রতিটি বিদ্যালয়ের উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে আলোচনা করে এবং মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে নিষেধ করে। বিকেলে শরীর চর্চার জন্য খেলাধূলা করার জন্য পরামর্শ দেন।

এ বিষয়ে পহরডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মল্লিক মাহামুদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ইউনিয়নে কিছু মাদক ব্যবসায়ী আছে যারা যুবসমাজকে ঠেলে দিচ্ছে মৃত্যুর মুখে, মাদক যারা সেবন করে শুধু সে নিজে যেমন ধ্বংস হচ্ছে ধ্বংস করছে তার পরিবার।
আরো জানান,

নড়াগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহার প্রচেষ্টায় এলাকার নামধারী মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, দালাল, চোর ডাকাত সহ শান্তি বিনষ্টকারী অনেকেই জেল হাজতে অথবা এলাকা ছাড়া হয়েছে। বিট পুলিশিং সমাবেশ বা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ে মতবিনিময় সভায় নড়াগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা প্রতিটি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি সহ এলাকায় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের মাদক কারবারে জড়িতদের তালিকা তৈরি করে দিতে বলেন। জনপ্রতিনিধিরা অতি দ্রুত প্রশাসনের কাছে মাদক ব্যবসায়ী ও সেবন কারিদের তালিকা তৈরি করে পাঠানোর অঙ্গীকার করেন।

বাঐসোনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম চুন্নু বলেন,
নড়াগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা অক্লান্ত পরিশ্রম করে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পাশিপাশি জনপ্রতিনিধিদের পাশে থেকে পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছে।

এ বিষয়ে নড়াগাতী থানার অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা বলেন, নড়াগাতী থানার সকল ইউনিয়নের মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারী প্রক্রিয়া চলমান। মাদক নির্মূলে নড়াগাতী থানার সকল অফিসার ও পুলিশ সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছে। আশা করি নড়াগাতী থানায় যে সকল মাদক ব্যবসায়ী গোপনে মাদক ব্যবসাকরে যুবসমাজকে ধ্বংস করছে তাদের অতি তাড়াতাড়ি আটক করা হবে।

বাংলাদেশ পুলিশ মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছে তারই ধারাবাহিকতায় নড়াইল পুলিশ সুপারের নির্দেষে নড়াইল জেলার সকল থানার মতো নড়াগাতী থানায় মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত আছে। নড়াগাতী থানার মাদক ব্যবসায়ীদের মাদক ছাড়তে হবে তা না হলে নড়াগাতী থানা ছাড়তে হবে।
তিনি আরো বলেন,

প্রতিটি ইউনিয়নে বিট পুলিশিং অফিসার নিযুক্ত করা হয়েছে। যাতে জনসাধারণ কোন কারনে পুলিশের সেবা হতে বঞ্চিত না হয়। একজন মানবিক পুলিশ অফিসারের মাধ্যমেই কেবল আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করে জনগণের সেবা করা সম্ভব।