শিরোনাম

নীলাদ্রির শেষকৃত্য সম্পন্ন

download (1)ব্লগার নীলাদ্রি চট্টোপাধ্যায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল শনিবার দিবাগত রাতে পিরোজপুর সদর উপজেলার টোনা ইউনিয়নের চলিশা গ্রামে পারিবারিক শ্মশানে তাঁর দাহ হয়।

ঢাকা থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে রাত সাড়ে ১০টার দিকে নীলাদ্রির মরদেহ তাঁর গ্রামের বাড়িতে পৌঁছায়।
নীলাদ্রির মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর থেকেই তাঁর গ্রামের বাড়িতে মাতম চলছিল। গতকাল রাতে তাঁর লাশ বাড়িতে পৌঁছালে স্বজনদের আহাজারিতে রাতের নিস্তব্ধতা মিলিয়ে যায়। ভারী হয়ে ওঠে এলাকার পরিবেশ।
ছেলের মৃত্যুর খবরে বাবা তারাপদ চট্টোপাধ্যায় আগেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। বাড়িতে ছেলের লাশ আসার পর বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন তিনি।
নিহতের মা অপর্ণা চট্টোপাধ্যায় ও বোন জয়শ্রী চট্টোপাধ্যায়ের কান্না যেন থামছিল না। শোকে প্রতিবেশীরাও বিমূঢ় হয়ে যান।
রাত সাড়ে ১১টার দিকে শেষকৃত্যের জন্য নীলাদ্রির মরদেহ শ্মশানে নিয়ে যাওয়ার আগে তাঁর মা অপর্ণা চট্টোপাধ্যায় শেষবারের মতো ছেলের মুখ দেখেন। পরম ভালোবাসা ও মমতার হাতে ছেলের মুখমণ্ডল ছুঁয়ে আদর করেন তিনি।
দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে নীলাদ্রির দাহ শুরু হয় । শেষ হয় ভোর সাড়ে তিনটার দিকে।
গত শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর পূর্ব গোড়ানের ভাড়া বাসায় ঢুকে চার দুর্বৃত্ত নীলাদ্রিকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই নিহতের স্ত্রী আশা মনি অজ্ঞাত পরিচয় চারজনকে আসামি করে খিলগাঁও থানায় হত্যা ও ল্যাপটপ-মুঠোফোন চুরির অভিযোগে মামলা করেছেন। নীলাদ্রিকে হত্যার ঘটনায় পুলিশ কাউকে শনাক্ত কিংবা গ্রেপ্তার করতে পারেনি।
এই হত্যাকাণ্ডের জন্য পুলিশ উগ্রপন্থীদের সন্দেহ করছে। হত্যার দায় স্বীকার করেছে আনসার আল ইসলাম নামের একটি সংগঠন।
নীলাদ্রিকে নিয়ে চলতি বছরের সাত মাসে চারজন লেখক ও ব্লগার খুন হয়েছেন। এর আগে ২০১৩ সালে খুন হন ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দার।
নীলাদ্রি গণজাগরণ মঞ্চের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর শেষ করে একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানে কাজ করতেন তিনি। এক মাস আগে চাকরি ছেড়ে দেন।
নীলাদ্রি ‘নিলয় নীল’ নামে বিভিন্ন গোষ্ঠীবদ্ধ ব্লগে লিখতেন। ফেসবুকেও ছিলেন একই নামে। নিজের নিরাপত্তা নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন ছিলেন তিনি। স্ত্রী আশা মনিকে নিয়ে পূর্ব গোড়ানের একটি বাড়ির পাঁচতলায় দুই কামরার ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন নীলাদ্রি। দুই বছর আগে বিয়ে করেন তিনি।

Be Sociable, Share!
বিভাগ: শিরোনাম, সর্বশেষ খবর, সারা বাংলার খবর

এখনো কোন মন্তব্য করা হয়নি.

মন্তব্য করুন

*