শিরোনাম

রাশিয়া দখলে ইউক্রেনের ডলফিন বাহিনীও

ডেস্ক : শুধু ক্রিমিয়াই নয়, ইউক্রেনের ডলফিন বাহিনীরও দখল নিয়েছে রাশিয়া। সাধারণ ডলফিন নয়। এই বাহিনী সেনাবাহিনীর বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। সমুদ্রের নিচে লুকিয়ে রাখা মাইন কিংবা শত্রুপক্ষের ডুবুরিদের খুঁজে বের করতে এদের জুড়ি মেলা ভার। সমুদ্র ঘেরা দেশের নিরাপত্তায় এই ধরনের ডলফিন বাহিনী বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। ১৯৬০ সালে সাবেক সোভিয়েত রাশিয়া প্রথম এই ধরনের ডলফিন সেনাবাহিনী গড়ে তোলে। সোভিয়েত শাসনের পতনের পরে ওই সেনার ভার হাতে নেয় কিয়েভ। রুশ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এবার থেকে ক্রিমিয়ার বন্দর-শহর সেভাস্তোপোলে মোতায়েন ডলফিন বাহিনী রাশিয়ার হয়ে কাজ করবে। এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ। তবে ডলফিনদের মতোই প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সিন্ধুঘোটক বাহিনীও রয়েছে ইউক্রেনের। তারা এখন মস্কো না কিয়েভ কার হাতে তা স্পষ্ট নয়।
ইউক্রেন নিয়ে সমস্যা পুরোপুরি না মিটলেও বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ঘোষণা করেছেন, এই পরিস্থিতি মোটেও ঠা-া যুদ্ধের মতো নয়। ইউক্রেনকে কেন আমেরিকা এবং ইউরোপের দেশগুলো সমর্থন করছে এ দিন বক্তৃতায় তারও বিশদ ব্যাখ্যা দেন তিনি। পাশাপাশি রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনকে তিনি সাবধান করেন, রাশিয়ার পদক্ষেপ ভুল বার্তা দিচ্ছে গোটা বিশ্বকে। এদিনই আবার ইউক্রেনকে ২ হাজার ৭শ’ কোটি ডলার সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছে আন্তর্জাতিক অর্থ ভা-ার (আইএমএফ)। এই সাহায্য পেলেও ইউক্রেন অন্যান্য দেশ থেকে আর্থিক সাহায্য গ্রহণ করতে পারবে বলেও আইএমএফ-এর তরফে জানানো হয়েছে।
ইউক্রেনে গণভোট চাইলেন ক্ষমতাচ্যুত ইয়ানুকোভিচ
ইউক্রেনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচ তার দেশের প্রতিটি অঞ্চলের ভবিষ্যৎ নির্ধারণে দেশব্যাপী গণভোট আয়োজনের আহ্বান জানিয়েছেন।
ইয়ানুকোভিচ এক বিবৃতিতে বলেন, আপনাদের চিন্তা ও আত্মার সঙ্গী হয়ে থাকা প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমি ইউক্রেনের প্রতিটি সুবিবেচক নাগরিকের প্রতি প্রতারকদের দ্বারা ব্যবহৃত না হওয়ার আহ্বান জানাই এবং ইউক্রেনের প্রতিটি অঞ্চলের ভবিষ্যৎ মর্যাদা নির্ধারণে একটি গণভোটের দাবি জানাই। এ মাসের গোড়ার দিকে এক গণভোটে ক্রিমিয়ার জনগণ রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পক্ষে মত দেন। রাশিয়ার সঙ্গে ক্রিমিয়া যুক্ত হওয়ার প্রায় দুই সপ্তাহ পর ইয়ানুকোভিচ ইউক্রেনে গণভোটের দাবি জানালেন।
রাশিয়াকে সৈন্য সরাতে হবে : ওবামা
আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, রাশিয়াকে ইউক্রেন সীমান্ত থেকে সৈন্য সরাতে হবে। একইসঙ্গে ইউক্রেনকে ‘ভয় না দেখাতে’ রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। ধাপে ধাপে উত্তেজনা কমিয়ে ইউক্রেন সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্যেও মস্কোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ওবামা গতকাল সিবিসি নিউজকে বলেন, ক্রিমিয়াকে অন্তর্ভুক্তি পরিকল্পনা ইউক্রেনকে ভয় দেখানোর জন্যে হতে পারে অথবা এর পেছনে মস্কোর অন্য কোনো উদ্দেশ্য আছে। রাশিয়া গত কয়েকদিনে ইউক্রেনের পূর্ব সীমান্তে প্রায় ৩০ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে। সূত্র: বিবিসি
Be Sociable, Share!
বিভাগ: ভিন্ন রকম খবর

এখনো কোন মন্তব্য করা হয়নি.

মন্তব্য করুন

*