শিরোনাম

বাসের চাকায় পিষ্ট হলো স্কুলছাত্রী

251693_167বাগেরহাট সংবাদদাতা: বাগেরহাটের শরণখোলায় বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক স্কুল ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু এবং অপর ৪ ছাত্রী আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের শরণখোলা-সাইনবোর্ড আঞ্চলিক মহাসড়কের নলবুনিয়া গাজীর ব্রিজ এলাকায়। ঘটনায় আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ।
নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানায়, উপজেলার ছোট নলবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা দিন মজুর আঃ আউয়াল তালুকদারের কন্যা ও ১১০নং নলবুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার (১০) ও তার আরো ৪ সহপাঠি চলমান মডেল টেষ্ট পরীক্ষা দিতে একটি রিকসাভ্যানে করে স্থানীয় আমড়াগাছিয়া কেন্দ্রে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে তাফালবাড়ি থেকে মোড়েলগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে আসা একটি বাস (খুলনা-ব-১০১৩ নং ) ছাত্রী বোঝাই ভ্যানকে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যায়। এ সময় ছাত্রীরা রাস্তায় ছিটকে পড়লে সুমাইয়া বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। ঘটনায় অপর ৪ ছাত্রী আহত হয়। এরা হচ্ছে রহিত (১০), রাব্বি (১০), সুমাইয়া (১০), রোজিনা (১১)।
গুরুতর আহত রহিত ও রাব্বীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ।
পরে খবর পেয়ে তার শিক্ষক, সহপাঠি ও স্থানীয়রা সুমাইয়াকে উদ্ধার করে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। স্কুল ছাত্রীর নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। খবর পেয়ে শরণখোলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাসটি একজন হেলপার চালাচ্ছিল। বাসের মালিক উপজেলার আমড়াগাছিয়া গ্রামের রিয়াজ উদ্দিন বলে জানা গেছে।
নলবুনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নাসরিন আক্তার জানান, তার বিদ্যালয়ের ওই ছাত্রীরা মডেল টেষ্ট পরীক্ষা দিতে পারল না।
শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল জলিল জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে যান বাহন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। চালক ও বাস আটকের চেষ্টা চলছে। তবে নিহত স্কুল ছাত্রীর পরিবার সহায়তা চাইলে সকল প্রকার আইনি সহায়তা প্রদান করা হবে।

Be Sociable, Share!
বিভাগ: জেলার খবর

এখনো কোন মন্তব্য করা হয়নি.

মন্তব্য করুন

*