শিরোনাম

বাস্তবায়ন বিঘ্নতায় দাতাদের দুষলেন পরিকল্পনামন্ত্রী

250606_128দেশের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির প্রকল্প বাস্তবায়নে আশানুরূপ অগ্রগতি নেই। বিশেষ করে বিদেশি অর্থায়নের প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি কম। আর এই কম অগ্রগতির জন্য পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ও সচিবরা দাতাদের দুষলেন। মন্ত্রী বলেন, ‘তাদের অর্থছাড়ে সময় নেয়া ও বাণিজ্যিক চুক্তিতে প্রলম্বিত করায় প্রকল্পের কাজ সঠিক সময়ে শুরু করা যাচ্ছে না।’

আজ রোববার শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মলন কক্ষে ১৫ মন্ত্রণালয় ও ১৬ বিভাগের সাথে এডিপি পর্যালোচনায় এসব কথা বলেন মন্ত্রী। পরে মন্ত্রী বৈঠক সম্পর্কে সাংবাদিকদের জানান।

পরিকল্পনা কমিশনের তথ্যানুযায়ী, সদ্য বিদায়ী অর্থবছরে এডিপির বাস্তবায়ন হার গত পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। এই হার ৮৫.০৬ শতাংশ। ডাক ও তার, রেলপথ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় প্রকল্প সাহায্য ব্যবহারে গত বছর সর্বনিম্নে রয়েছে।

জানা যায়, এবছর দু’মাসে আর্থিক অগ্রগতি ৫.১৫ শতাংশ হলেও পিএ ব্যবহার মাত্র ৩.৬৭ শতাংশ। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, রেলপথ ও সেতু বিভাগের বাস্তবায়ন হার এক শতাংশও হয়নি। এরা কোনো অর্থ ব্যয় করতে পারেনি। প্রকল্প সাহায্য ব্যবহার সর্বনিম্নতা এডিপি বাস্তবায়নে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, অর্থ ব্যয়কেই এডিপির অগ্রগতির শতকরা হার ধরা হয়।

Be Sociable, Share!
বিভাগ: অর্থনীতি

এখনো কোন মন্তব্য করা হয়নি.

মন্তব্য করুন

*